কালো কন্যা, তুমি অন্যদিকে চেয়ো না!

লাজ্বাতুল কাওনাইন:

আমার প্রিয় কয়েকটি রঙ এর ভিতর কালো একটি। কালোর রঙের অনেক গুণ! ধরুন কালো জামা এতে আপনাকে স্লিম লাগবে। কালো চশমা এতে আপনার চোখ রোদ্দুর থেকে বাঁচবে। কালো চুল মানে বনলতা হয়ে গেলেন। কালো টাইলস ময়লা কম দেখাবে। কালো মন বুঝবেন এর থেকে একশ তিন হাত দূরে!! উফফ কালোর কত গুণ বুঝতেই পারছেন! তবে কি কালো রঙ সব রঙকে শোষণ করে নিয়ে নিজস্ব গুণে তেজস্বী! শুধু এই কারণে একে আমি নাম দিয়ে তেজস্বী রঙ!

এবার আসি কালো রঙের বে_গুণের কথা। না না ভুল বুঝবেন না। ভাবছেন বুঝি কালো বেগুন চাষ শুরু করলাম কিনা! না বলছিলাম কালো রঙের কন্যাদের কথা! এগুলান সব বেগুণ! রাগের কোনো কারণ নেই। আপনারাই বলুন এদের দিকে তাকানো যায়! কেমন কালো কালো!

ধরুন কোনো দম্পতির কালো মেয়ে জন্মালো। এটা তো আজীবনের অভিশাপ আমাদের দেশে। “প্রথম কথা; এমা একি! এ কার মতো হয়েছে গো!” ব্যস, গেলো তো মন কালো হয়ে! এই মেয়ে নিয়ে আমাদের কি কি করণীয় হবে….
প্রথমত: একে দুধের সাথে ফর্সা হবার ক্রীম গুলিয়ে খাওনো শুরু করা যেতে পারে! কারণ জন্মদিন থেকেই চিন্তা এর বিয়ে দিবেন কিভাবে! চিন্তা না দুঃখিত, মহাচিন্তা!
দ্বিতীয়তঃ এই কালো মেয়ে স্কুল, কলেজ বিশ্ববিদ্যালয় সব খানে মুখ কালো করে রাখবে। তার সাদা সাদা বান্ধুবিদের সাথে সবাই গায়ে পড়ে মিশে। সবাই বলে আল্লাহ তুমি এতো কেন সুন্দর। আর কালো কন্যার মাত্র হাতে গোনা দু বা এক জন বান্ধুবি। কোনো ছেলে তো দূরের কথা মেয়েরাও তাকায় না! হীনমন্যতায় ডুবে যায়।
তৃতীয়তঃ কালো মেয়েদের পরিবারের থেকে পড়ালেখার খুব তাগিদ থাকে। অতি শিক্ষিত বানানোর জন্য নয় কিন্তু! আরে বাবা একে তো কালো ভালো বিয়ের কোনোই সম্ভাবনা নেই তার উপর মাথা নেই। কি দেখে গুণী বরটা আসবে শুনি! মহাসইত্য!
চতুর্থতঃ কন্যাকে হাজারো পাত্র আসে দেখে, চলে যায়! কোরবানির গরু আর কি! ভালো না দেখতে! ভালো না মানেই কালো(বাংলাদেশি ট্রেডমার্ক) ছেলে মা বোন খালা ফুফু, যারা মনে হয় স্ত্রীলিঙ্গই হবেন!! বলেন নারে ছেলের জন্য কালো মেয়ে দেখবো এটা কেমন! চল আগামীকাল একটা মেয়ে দেখতে যাবো, সেটার নাকি দুধ না চুনে আলতা টাইপ সুন্দর! লে ঠ্যালা কন্ডিশন!
পঞ্চমতঃ প্রায় কালো মেয়েদের সংসার জীবনে শুনতে হয় সুন্দর সুন্দর কথা! জামাই বলেন, কালো মেয়ে বিয়ে করে কপাল ছাই হলো! লাইনে ছিলো সাদা আর সাদা! মানে সব গুঁড়া সাবানে ধোলাই মেয়ে! শ্বশুড়ি আম্মা বলেন, কালাকুলা দেখে আনলাম যাতে ঘরের কাজকর্ম করে এ দেখি লাট সাহেবের ঝি! উনি ভুলে বুয়া ভেবেছেন!(বয়সের দোষ)

ষষ্ঠতঃ কিছু কালো কন্যাদের জামাই পরকীয়া বা বহুবিবাহে লিপ্ত! কারণ তাদের শক্তিশালী যুক্তি। তুমি কালো অসুন্দর তোমাকে ভালো লাগে না! ঘর করবো না ব্যস!

যা বললাম সব আমাদের সমাজে ঘটছে,কিছুই আমার মন গড়া না! আপনি চোখ খুললেই দেখতে পাবেন! জন্ম থেকে মৃত্যু আমাদের দেশের অনিন্দ্য সুন্দর অসীম সুন্দর মনের কৃষ্ণ বর্ণা মেয়েগুলোকে আমরা অবজ্ঞা করতে করতে কোথায় নিয়ে ঠেকাই! সারাজীবন মন ছোট করে রাখা মেয়েগুলো বেশি গঞ্জনার স্বীকার হয় সমাজের মহিলা দ্বারাই! পুরুষদের কথা না হয় নাই বা বলি!

জন্মগত যে দারুণ শারীরিক গুণটা নিয়ে সে এখানে এসেছে তা অবজ্ঞা করবার আমি আপনি কে বলুন তো! তার আত্মবিশ্বাস কেড়ে নিয়ে যে পাপ করছেন তার থেকে মুক্তি পাবেন তো! মানুষকে বিধাতা খুব যত্নে গড়েছেন। এটা তার সম্পদ। আপনি হয়তো উপহার হিসেবে পেয়ে মূল্যটাই বুঝেন না! তাই বলে ছুঁড়ে ফেলেবেন না মুখ আর ভাষা দিয়ে। একটু মন আর চোখ সুন্দর আর পবিত্র করে তাকিয়ে তাকিয়ে দেখুন কি তেজস্বী মেয়েগুলো আর অবাক মায়াভরা বদন। তাদের অনেক অনেক গুণ।

একটু পাশে থাকুন সামান্য আত্মবিশ্বাস দিন। দেখবেন সারাবিশ্ব জয় করে এনে আপনার সামনে হাসছে আর বলছে, আমি ঠিক ঠিক পেরেছি না বলো!

শেয়ার করুন:
  • 579
  •  
  •  
  •  
  •  
    579
    Shares
Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.