মেয়েদের বলছি…………..

 

প্র্রিয়াংশু চাকমা: দেশের বর্তমান পরিস্থিতিতে আত্মরক্ষার কৌশল নিজেকেই রপ্ত করতে হবে। কেউ আপনাদের বাঁচাবে না, না সমাজ, না রাষ্ট্র, না আইন, না কিছু। কাজেই যতদিন বেঁচে থাকবে, বীরের মতোই বাঁচতে হবে। কষ্ট করে ছবিতে দেয়া কৌশলগুলো একটু জেনে নিন। বাসায় কয়েকদিন চর্চা করলেই হয়ে যাবে।

Self defenceজেনে রাখুন, একজন ধর্ষকের শরীরে প্রধানত তিনটা দুর্বল জায়গা থাকে। আত্মরক্ষার কৌশল শিখতে হলে ধর্ষক পুরুষের দেহের দুর্বল জায়গাগুলো কোথায় তা আগে জানতে হবে।

১। অণ্ডকোষ

২। গলা

৩। চোখ

এই তিনটা জায়গায় কম, মাঝারি এবং বেশি, যেকোন শক্তি প্রয়োগ করে আঘাত করতে পারলেই, যেকোন ধর্ষক কাবু হতে বাধ্য। আত্মরক্ষা বা আঘাত করার পদ্ধতিটা আয়ত্ব করতে পারলেই প্রয়োগ করাটা সাহসের ব্যাপার মাত্র।

মনে রাখা দরকার আমাদের দেশে আত্মরক্ষার কৌশল শেখানো হয় স্পোর্টস ওরিয়েন্টেড চিন্তা করে। স্পোর্টস ওরিয়েন্টেড চিন্তা করে আত্মরক্ষার কৌশল আয়ত্ব করা যায় না। তাই যারা আত্মরক্ষার কৌশল শিখবেন শুধু আত্মরক্ষার জন্যই শিখবেন, স্পোর্টস এর জন্য নয়।

সময়ের প্রয়োজনে আত্মরক্ষার কৌশল শিখুন, নিজেকে নিজেই রক্ষা করুন।

শেয়ার করুন:
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.