নারী আন্দোলন নিয়ে নাক সিঁটকানোর কিছু নেই

আয়েশা শিউলি: নারী আন্দোলন, নারীর ক্ষমতায়ন ইত্যাদি ইস্যুতে অনেক পুরুষ ভাইদের দেখেছি নাক সিটঁকাতে অথবা তাচ্ছিল্যভাবে এক গাল হাসতে। এমনকি নারী অধিকার আন্দোলনের বিষয়ে অনেক নারীদেরকেও দেখেছি অনেক নেগেটিভ পিতৃতান্ত্রিক দৃষ্টিভঙ্গি পোষণ করতে!

এই যে নারী, সে স্বাভাবিকভাবে হাঁটবে, অগ্রসর হবে, ভয় পাবে না, ভুল-ভ্রান্তি হলে মেনে নেবে না, যুক্তিবাদী হবে, বিচার-বিশ্লেষণ করতে শিখবে, তা হবে না, সেটাই বিপ্লব-বিদ্রোহ হয়ে যাবে। হ্যাঁ’কে ‘হ্যাঁ’ বলা আর না’কে ‘না’ বলা তো আমার অধিকার, এটা থেকে আমি কী করে বিরত হবো! কেনই বা হবো? শুধুমাত্র নারী বলে!!

Ayesha Sheulyনারীরা যতদিন পিতৃতান্ত্রিকতা হতে মুক্ত না হবে, ততদিন আমাদের কন্যাদের মুক্তি মিলবে না, সমাজ শুধরাবে না, যতদিন না ছেলেকে নারীদেরকে সম্মান করতে শেখাবো।
অনেকেই নারী আন্দোলন মানেই ধরে নেন এটা পুরুষবিরোধী কোন আন্দোলন, তাদের জ্ঞাতার্থে বলতে চাই, নারী আন্দোলন হচ্ছে একটি অসম প্রথা, অসমতাপূর্ণ সমাজ, অসম সংস্কৃতি, দৃষ্টিভঙ্গি ও একটি পক্ষপাতদুষ্ট ব্যবস্থার বিপক্ষে আন্দোলন, যা নারীকে পশ্চাদপদ করে রেখেছে এর জন্যই ইকুইটি বা ন্যায্যতার প্রশ্ন আসে, আরও বলতে চাই নারী আন্দোলন কখনো সফল হবে না যদি না নারী-পুরুষ মিলে এর লক্ষ্যার্জনে কাজ করে। প্রকৃত নারী আন্দোলনে নারীকে এগিয়ে নিতে হাতে হাত রেখেই কাজ করতে হবে।

প্রত্যেকের ঘরেই নারীরা সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ কাজগুলো করে, কিন্তু কেন জানি বাড়ির বাইরে বেরোলেই অনেকেই তা ভুলে যায়, অন্য একজন নারীকে দেখলে মেতে উঠে নিন্দায়, কখনো সহিংসতায়, এই বিভেদ, বিদ্বেষ যত বেশী থাকবে ততই পিছিয়ে যাবো আমরা, আমাদের সমাজ!! যেখানে এই বিভেদ এই বৈষম্য সেখানেই জন্ম নেয় সহিংসতা। 

পরিবার হতেই বাবা মায়েদেরকে এই শিক্ষা দিতে হবে, ছেলেমেয়েদেরকে পাশপাশি ছেলেমেয়ের সাথে এক ও অভিন্ন আচরণ করতে হবে, সমান সুযোগ-সুবিধা দিতে হবে উভয়কে এবং আত্মবিশ্বাসী করে গড়ে তুলতে হবে। এই অভ্যস্ততা, এই ভিত্তি পরিবার হতেই আমাদেরকে গড়ে দিতে হবে। ছেলেমেয়েকে শিক্ষাসহ অন্যান্য সুযোগ সুবিধাভোগেও সমান প্রাধান্য দিতে হবে, ছেলেকে শেখাতে হবে বোন, মা এর পাশাপাশি অন্য নারীদেরকে সম্মান করতে। যে পরিবারে স্বামী তার স্ত্রীকে, কন্যাকে সম্মান করবে সে পরিবার থেকে যে ছেলে শিশু বের হয়ে আসবে সেও নারীদেরকে সম্মান করতে শিখবে, তাই পরিবারকে ভিত্তি করেই সমাজকে এগিয়ে নিতে হবে।  

কোন অদ্ভুত আলাদা প্রজাতি নয় নারীরা, আপনাদেরই মা-বোন অথবা স্ত্রী, আর নারী আন্দোলন কোন আলাদা বিষয় নয়, আজকের কোনো আন্দোলন কালকেই হয়তো হয়ে যাবে আপনার মেয়ে বা বোনের.উন্নয়নের আন্দোলন, সুতরাং বিচ্ছিন্ন ভাবার কোন সুযোগ নেই।

নারী আন্দোলন হচ্ছে সমাজ এগিয়ে নেবার আন্দোলন। অনেক পুরুষ নারীবাদীদের কথাও আমরা জানি যারা যুগে যুগে এই ইস্যুতে কাজ করে গেছে, পট পরিবর্তনে বিশাল ভূমিকা রেখেছে, কেন জানি মাঝে মাঝে মনে হয় আগে আমরা অনেক সভ্য ছিলাম, ধীরে ধীরে আনসিভিলাইজড হয়ে যাচ্ছি!!

শেয়ার করুন:
Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.