যুদ্ধ কিন্তু চলবেই…..

kolomইতু ইত্তিলা: ভাষার মাসে খুন হলেন অভিজিৎ, স্বাধীনতার মাসে খুন হলেন ওয়াশিকুর বাবু। বাংলা ভাষায় নিজ নিজ মত প্রকাশের স্বাধীনতাটুকু এদেশে নেই। বাংলাদেশ একটি ‘স্বাধীন রাষ্ট্র’। স্বাধীনতা তবে কাদের জন্য??? বিষয়টি নিয়ে ভাববার সময় এসেছে বটে।

মুক্তমনা লেখক, ব্লগার অভিজিৎ রায়ের হত্যার ১ মাস ৪ দিনের দিন আরেকজন ব্লগার ওয়াশিকুর বাবুকে কুপিয়ে হত্যার খবর পেলাম। ব্লগার হত্যার খবর এখন কেমন জানি স্বাভাবিক হতে শুরু করেছে, যেন এটাই নিয়ম। হবে নাই বা কেন? অভিজিৎ হত্যার এত এত প্রমাণ থাকা সত্ত্বেও কিছুই কি হয়েছে এই এক মাসে?? কিছুদিন গ্রেপ্তারের নাটক করে ছেড়ে দেয়া হবে।

অভিজিৎ রায়ের হত্যার পর পুরস্কার হিসেবে ৫০০ মসজিদ উপহার দিয়ে দেয়া হল, যাতে আরও কিছু মানুষের মগজ ধোলাই করা যায়, আরও কিছু খুনি জঙ্গি সৃষ্টি হয়।

ওয়াশিকুরের খুনের পরিকল্পনা হয়েছে চট্টগ্রামের হাটহাজারির একটি মাদ্রাসায় বসে। খুনিরা মাদ্রাসার ছাত্র। আর খুনিদের ধরতে সাহায্য করেছে কয়েকজন ভিন্ন লিঙ্গের মানুষ। যাদের আমরা মানুষ বলেই গণ্য করি না, তারা আজ আমাদের মনুষ্যত্ব কী তা শিখিয়ে গেলো।

‘ব্লগ কি বুঝি না, আর তার লেখাও আমরা দেখিনি। হুজুরের পরামর্শ, সে ইসলামবিরোধী। তাকে হত্যা করা ঈমানি দায়িত্ব। আর সেই ঈমানি দায়িত্ব পালন করতে ওয়াশিকুরকে হত্যা করেছি’। ব্লগার ওয়াশিকুর রহমান বাবু হত্যার সঙ্গে জড়িত দুই মাদ্রাসার ছাত্র জিকরুল্লাহ ও আরিফুল ইসলাম আটকের পর পুলিশের কাছে এমন তথ্য দিয়েছে। খুবই স্বাভাবিক। তাদের জঙ্গি কারখানা (মাদ্রাসা) থেকে যা শিক্ষা পেয়েছে সেই অনুয়ায়ী কাজ করেছে। তাই ব্লগার ওয়াশিকুরের হত্যার জন্য দায় শুধু খুনিদের দেই কি করে?? খুনিদের তো প্রশ্রয় দিয়েছে রাষ্ট্র।

তবে খুন করে যদি মুক্তচিন্তাকে থামিয়ে দেয়া সম্ভব বলে মনে করে কেউ তবে খুব ভুল করবে। কয়েকদিন আগে চিটাগাং এ কোন এক প্রাইভেট ভার্সিটিতে একজন ছাত্রকে মুক্তচিন্তার অপরাধে টিসি দেয়া হয়। তার আরও সাত সহপাঠীকে সতর্ক করা হয়। বরিশালে এক কলেজ ছাত্রকে মুক্তচিন্তার অপরাধে কলেজ থেকে বহিষ্কার কারার দাবিতে মানববন্ধন করা হয়….।

খুনের সংখ্যা যেমন বাড়ছে মুক্তচিন্তার মানুষের সংখ্যা আরও বাড়ছে। তাই খুন করে ভয় দেখিয়ে দমিয়ে রাখা যাবে না এটা নিশ্চয়ই তারা বুঝেছে। বাংলাদেশে অনলাইনে একটি বিপ্লব চলছে, একটি যুদ্ধ চলছে। বাক স্বাধীনতার জন্য আমরা যুদ্ধ করছি। এই যুদ্ধে রাজিব হায়দার প্রাণ দিয়েছেন, অভিজিৎ রায় প্রাণ দিয়েছেন, ওয়াশিকুর বাবু প্রাণ দিয়েছেন। তাদের আদর্শকে সামনে রেখে, শোককে শক্তিতে পরিণত করে আমরা আমাদের যুদ্ধ চালিয়ে যাব।

শেয়ার করুন:
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.