‘নির্দলীয় সরকার না হলে গণঅভ্যুত্থান হবে’

Rafiqul-Islam-Miah-300
ফাইল ছবি

উইমেন চ্যাপ্টার: নির্দলীয় সরকারের দাবি না মানলে গণঅভ্যুত্থান ঘটানো হবে বলে সরকারকে হুঁশিয়ার করে দিয়েছেন বিএনপি নেতা রফিকুল ইসলাম মিয়া।

নির্বাচনকালীন সর্বদলীয় সরকার গঠনে প্রধানমন্ত্রীর প্রস্তাবের পরদিন শনিবার জাতীয় প্রেসক্লাবে এক আলোচনা সভায় তিনি এই হুঁশিয়ারি দেন।

তবে বক্তব্যে প্রধানমন্ত্রীর প্রস্তাবের বিষয়ে কিছু বলেননি বিএনপির স্থায়ী কমিটির এই সদস্য। রফিকুল বলেন, বর্তমান মহাসঙ্কটের জন্য সরকারই দায়ী। তাই সরকারকে বলব, এখনো সময় আছে, নির্দলীয় সরকারের দাবি মেনে সুষ্ঠু নির্বাচনের পথ প্রশস্ত করুন। নইলে গণঅভ্যুত্থানে আপনাদের পতন নিশ্চিত করা হবে।

‘বিএনপি না এলে ৪৮টি দল নিয়ে নির্বাচন হবে’- প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টা এইচ টি ইমামের এই বক্তব্যের সমালোচনা করে তিনি বলেন, বিএনপিকে বাদ দিয়ে সরকার একতরফাভাবে নির্বাচন করতে চায়। নাম-ঠিকানাবিহীন বিএনএএফের মতো দল বানিয়ে নির্বাচন করতে চায় এই সরকার। কিন্তু বিএনপিকে বাদ দিয়ে কোনো নির্বাচন জনগণ মেনে নেবে না, হতেও দেয়া হবে না।

আন্দোলন দমনে বিরোধী দল দমনের ওপর নির্যাতন চলছে অভিযোগ করে রফিকুল বলেন, “সরকারের পুলিশ বাহিনী অন্যায়ভাবে বিরোধী দলের নেতা-কর্মীদের বাসায় তল্লাশি চালাচ্ছে, হয়রানি করছে। রাষ্ট্র এভাবে হয়রানি করার কোনো অধিকার পুলিশকে দেয়নি।

সভায় বিরোধী দলীয় প্রধান হুইপ জয়নুল আবদিন ফারুক বলেন, “২৫ অক্টোবরের খালেদা জিয়ার জনসভা পণ্ড করতে সরকার নানা কৌশল করছে। জনসভার জন্য অনুমতি চাইলেও এখনো তা দেয়া হয়নি। সেদিনই হবে এই সরকারের শেষ দিন, এরপর থেকে তাদের কথা মতো আর দেশ চলবে না।

স্বাধীনতা ফোরামের উদ্যোগে ওই আলোচনা সভায় আরো বক্তব্য রাখেন সংগঠনের সভাপতি আবু নাসের মুহাম্মদ রহমাতুল্লাহ, সাংবাদিক নেতা রুহুল আমিন গাজী, কাদের গনি চৌধুরী, ঢাকা আইনজীবী সমিতির সাধারণ সম্পাদক খোরশেদ আলম মিয়া, নাগরিক সংসদের সভানেত্রী খালেদা ইয়াসমীন, জিয়া নাগরিক ফোরামের সভাপতি মিয়া আনোয়ার হোসেন প্রমুখ।

শেয়ার করুন:
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.