একটা অদৃশ্য লিমিটেশন অনুভবে টের পাই

Crocodile tearsসাজিয়া আফরীন: একটা মানুষ আর একটা মানুষকে নির্দ্বিধায় কুপিয়ে মেরে ফেলছে! দুদিন ফেসবুকে গরম গরম স্ট্যাটাস, সরকারি মহলের উত্তেজনামূলক বক্তব্য, মুখে পারলে সেই মূহূর্তেই করাত দিয়ে ঈমান কর্তন করে ফেলবে – তারপর আবার কিছুদিন পর অন্য কেউ খুন হবে!!

এভাবেই চলছে, চলবে … কারণ আমরাই চাই না জাতিকে অভিশাপ মুক্ত করতে! ঐ যে ঈমান.. এত সস্তা… খোলা পিঠ নারী দেখলে চলে যায়.. নারীরা শিক্ষিত হলে চলে যায়.. ধর্ম নিয়ে প্রশ্ন করলে চলে যায়। হায়রে ঈমান.. যাক উড়ে এমন বেহুদা ঈমান। একটা মানুষ নিজের মতো করে ব্লগে বা সামাজিক মাধ্যমে মতামত প্রকাশ করলেই কোপ! উদাহরণমূলক কঠিন থেকে কঠিনতর শাস্তির বিধান না করলে মুক্ত চেতনার মানুষ, সামনের দিনগুলোতে বাতি দিয়ে খুঁজেও পাওয়া যাবেনা।

বাংলাদেশের মাটিতে প্রতিটি জীবন প্রচণ্ড রকম নিরাপত্তাহীন। তার উপর সে যদি হয় মুক্তচিন্তার অধিকারী তবে তো খবর আছে। হেন করেংগা তেন করেঙ্গা টাইম নাই, এই মূহূর্তে সকল ব্লগার সকল মুক্ত চিন্তার মানুষদের দ্বীন দুনিয়া ভুলে গিয়ে একটাই দাবি হওয়া উচিত, অভিজিৎসহ অন্যান্য ব্লগারদের হত্যাকারীদের বিচার চাওয়া।

যতক্ষণ পর্যন্ত বিচার কাজ সম্পূর্ণ না হবে এবং শাস্তির ব্যবস্থা না হবে, ততক্ষণ পর্যন্ত বিভিন্ন মিডিয়াতে লিখেই যাবে। একদিন এক মূহূর্তের জন্যেও থামবো না এই প্রতিজ্ঞা করে। ছুরি-চাপাতি বাহিনীর বিরুদ্ধে কলমের যুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়তে হবে।

এটা মগের মুলুক নাকি যে, কারো লেখার বিরুদ্ধে দ্বিমত হলেই কোপ দিবে, মৃত্যু নিশ্চিত করে রাজপথে হেঁটে চলে যাবে?

এখন পর্যন্ত দৃষ্টান্তমূলক কোনও শাস্তির ব্যবস্থা হয়নি বলেই অমানুষগুলোর এত সাহস বেড়েছে। বিষয়টা জানার পর থেকে মনে হচ্ছে, এমন ঈমান যেনও বিধাতা না দেন কাউকে। ঈমান বিষয়টা যখন এত দুর্বল, ঐ ঈমান ধুয়ে কি পানি খাবে নাকি. মানুষ হয়ে মানুষ খুন করার মধ্যে ঈমান পাইলি কই হারামির দল?? না ধর্ম মানে, না ধর্ম জানে! তেলাপোকার মতো অভিশপ্ত এরা।

পুরো দেশের পেস্ট-কন্ট্রোল করে এদের ডিমসহ একদম …. শুরুতেই খতম করা উচিত ছিলো। ক্ষমা না করে নির্মূল করা হলে, ২০১৫ সালে এসে এদের বর্বরতা দেখতে হতো না। প্রতি ঘরে ঘরে এমন ঈমানের উজবুক জন্মাচ্ছে। এরা এখন ঘরে ঘরে ঢুকে পড়েছে। এদের এখনই সুস্থ চিন্তার এন্টিভাইরাস ইঞ্জেক্ট না করলে, এরা এদের মতের বিরুদ্ধে গেলে নিজের পিতা মাতাকেও হত্যা করবে।  এদের সংখ্যা এমন হারে বাড়ছে, একটা সময় ঈমানের ভয়ে কেউ আর মুক্তচিন্তা নিয়ে যুক্তি দিয়ে সৃজনশীল তর্ক দিয়ে লিখবে না। ভাবতে পারবে না। একটা অদৃশ্য লিমিটেশন ইতিমধ্যে অনুভবে টের পাচ্ছি, আর ঘুমিয়ে থাকা চলবে না, নইলে ঘুমের মধ্যেই চাপাতির কোপ দিবে- জাগো সবাই…..

শেয়ার করুন:
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.