দরকারে চণ্ডালী হও, কিন্তু যৌতুকের বলি না

0
Trina

শামরিন সুলতানা তৃণা

শামরিন সুলতানা তৃণা: কোন কাজকর্ম নেই। তাই বসে বসে ভাবি…।। একেক সময় এক এক বিষয় হয়ে ওঠে আমার ভাবনার বিষয় । আজ যেমন বিষয় ছিল বাংলা ভাষা। সত্যি বলছি এমন যুতসই ভাষা পৃথিবীর আর কোথাও আছে কিনা আমার জানা নাই । সবকিছুর জন্য এর ভাণ্ডারে আছে আলাদা আলাদা শব্দ, আলাদা বানান । যা কিনা নিজেই তার উপস্থিতি দিয়ে বুঝিয়ে দেয় সে কি বলতে চাচ্ছে । সহজ উদাহরণ সম্মোধনের কথাই ধরুন না কেন । তুই, তুমি, আপনি…। আরো কত কি । যার যে কোন একটির প্রয়োগ অনেক কিছু বুঝিয়ে দেয় । যা ইংরেজি You এর কম্মো নয় ।

যেমন সহধর্মিনী বাংলায় ব্যবহৃত শব্দগুলো বৌ, বউ, স্ত্রী……। নতুন বৌ আমি এভাবেই লিখতে পছন্দ করি । বানানটার মাঝে বেশ একটা সলজ্জ্ব ঘোমটা টানা মুখের উপস্থিতি বোঝা যায় । কিন্তু নিত্য দিনের ব্যবহারে নতুন কাপড় যেমন পুরানো হয় তেমন বিয়ের কয়েক বছর পর তাকে আমি বউ লিখতেই পছন্দ করি । যেন আটপৌরে জীবনের সাথী । বানানটার মাঝে একটা সবসময় পাশাপাশি থাকা ভাব আছে । আর স্ত্রী শব্দটা হল পরপুরুষদের জন্য । প্রথম থেকেই । যেন হাতে কাস্তে নিয়ে হাজির । অমর্যাদা করবে ? দেব ধর থেকে মাথাটা আলাদা করে ।

অপরদিকে বর , স্বামী …।। স্বামী বানান তার বিষম জটিলতা দিয়ে বুঝিয়ে দেয় ব্যাপারটা কত জটিল । অনেকটা কর্তার হুকুমে কর্ম এর মত । স্বামী … বাড়ির কর্তা, হাকিম নড়ে তো হুকুম নড়ে না , সে বাড়িতে মানে থরহরি কম্মোমান অবস্থা বাড়ির সবার । যাদের জন্য বাড়ির বউ চুলায় ভাত চাপিয়ে আয়াতুল কুরসি পড়ে । একটু এদিক ওদিক হলেই ঘরে বাজ পড়তে পাড়ে । তুলনামূলক বর শব্দটা বেশ । ব্যুৎপত্তি আমার জানা নাই । তবে মহাভারতে যখন দেবতারা কারো ওপর  সন্তুষ্ট হয় তখন তাকে বলে কি বর (উপহার) চাও যা হতো কিনা কোন ব্রহ্মাস্ত্র । যুদ্ধে সৌভাগ্য আনার নিমিত্ত । বর ! হম ……।

জীবনযুদ্ধে সৌভাগ্য আনার সাথী হিসাবে বরের সাথে যখন একটি মেয়ে বৌ থেকে সময়ের সাথে বউ হয়ে যায় , তখন বর যদি স্বামী হতে চায় তবে বউকেই নিজের বরের জন্যই স্ত্রী হতে হয় । মানে কাস্তে হাতে দাঁড়াতে হয় স্বামীর বিরুদ্ধে । নতুবা পরিণতি  হয় শামার মত । স্বামীর বিপরীত তাই স্ত্রী । বৌ অথবা বউ নয় ।

আর কোন মৃত্যু শোক নয় । আর কোন মৃত্যু কাম্য নয় । দরকারে চন্ডালী হও, কিন্তু যৌতুকের বলি না ।

 

শেয়ার করুন:
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

লেখাটি ৩৬ বার পড়া হয়েছে


উইমেন চ্যাপ্টারে প্রকাশিত সব লেখা লেখকের নিজস্ব মতামত। এই সংক্রান্ত কোনো ধরনের দায় উইমেন চ্যাপ্টার বহন করবে না। উইমেন চ্যাপ্টার এর কোনো লেখা কেউ বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করতে পারবেন না।

Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.