‘পিংকি পুরুষ হলেও ধর্ষণে অক্ষম’

Pinkyউইমেন চ্যাপ্টার: এশিয়াডে সোনাজয়ী ভারতীয় অ্যাথলেট পিংকি প্রামাণিক পুরুষ না নারী এ নিয়ে বেশ আলোড়ন তৈরি হয়েছিল ভারতে। তার বিরুদ্ধে তারই সঙ্গী ধর্ষণ, হুমকি ও প্রতারণার অভিযোগ এনেছিলেন। অবশেষে নানা পরীক্ষা-নিরীক্ষা শেষে পিংকি পুরুষ হিসেবে প্রমাণ হলেও ধর্ষণের ক্ষমতা তার নেই, একথা উল্লেখ করে অভিযোগগুলো থেকে মুক্তি দিয়েছে কলকাতা হাইকোর্ট ।

বিবিসি বাংলার এক খবরে বলা হয়, পিংকির এক সঙ্গিনী পুলিশের কাছে অভিযোগ করেছিলেন যে এশিয়াডসহ নানা দেশী বিদেশী প্রতিযোগিতায় মহিলা হিসাবে যোগ দিলেও পিংকি একজন পুরুষ। এবং পিংকি তাঁকে নিয়মিত ধর্ষণ করতেন। এছাড়াও প্রতারণা আর হুমকির অভিযোগও জানান ওই নারী। অভিযোগ পাওয়ার পরেই গ্রেপ্তার হন পিংকি। এ নিয়ে তখন ব্যাপক আলোচনা শুরু হয়।

একই সঙ্গে পিংকির লিঙ্গ নির্ধারণের জন্য পরীক্ষা শুরু হয়। ধর্ষণের অভিযোগে পিংকি প্রামাণিক গ্রেফতার হন।

বেশ কয়েকবার পরীক্ষার পরেও বোঝা যায় নি তিনি পুরুষ না মহিলা। শেষমেশ ক্রোমোজোম পরীক্ষার মাধ্যমে প্রমাণিত হয় পিংকি মহিলা নন পুরুষ। তবে তাঁর পক্ষে যৌন সঙ্গম করা সম্ভব নয়।

ওই রিপোর্ট পাওয়ার পরে পুলিশ আদালতে সওয়াল করে যেহেতু পিংকি পুরুষ তাই তিনি ধষর্ণ করেছেন। দুবছর ধরে মামলা চলার পরে আজ আদালত ওই সব অভিযোগ খারিজ করে দেয়।

শেয়ার করুন:
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.