ইরাকে মেয়েদের খৎনা করার নির্দেশ

ইরাকে জাতিসংঘের আবাসন এবং মানবাধিকার বিষয়ক এক কর্মকর্তার বরাত দিয়ে বিবিসি এ খবর দিয়েছে। ইরাকের মসুলসহ উত্তরাঞ্চলীয় শহরগুলোর ১১ থেকে ৪৬ বছর বয়সী নারীদের ওপর এ ফতোয়া কার্যকরের নির্দেশ দেয়া হয়েছে বলে প্রতিবেদনে জানানো হয়।

প্রাপ্ত বয়স্ক মেয়েদের যৌনাঙ্গ কর্তন বা খৎনা আফ্রিকা অঞ্চলের একটি প্রথা। কিন্তু এই প্রথাটি অত্যন্ত অন্যায় এবং যন্ত্রণাদায়ক বলে ২০১২ সালে সব সদস্য দেশে তা নিষিদ্ধ করেছে জাতিসংঘ।

ইরাকে জাতিসংঘের কর্মকর্তা জেকলিন বেডকক বলেন, ইসলামিক স্টেটের ওই ‘ফতোয়ার’ ফলে তাদের দখলকৃত অঞ্চলের অন্তত ৪০ লাখ নারী এর শিকার হতে পারে।

গত সোমবারই ব্রিটিশ সরকার এবং জাতিসংঘ শিশু তহবিল বা ইউনিসেফ এর উদ্যোগে লন্ডনে হয়ে গেল গার্ল সামিট। এবারে এর প্রতিপাদ্য ছিল বাল্যবিবাহ দূর করা এবং মেয়েদের খৎনা প্রথা বন্ধ করা। বাংলাদেশসহ বিশ্বের ৫০টি দেশের ৫০০ প্রতিনিধি এই সামিটে অংশ নেন।

শেয়ার করুন:
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.