ওবামা প্রশাসনে প্রথম বাংলাদেশি নীনা

Nina Ahmedউইমেন চ্যাপ্টার: নীনা আহমদ প্রথমবারের মতোন একজন বাংলাদেশি হিসেবে যোগ দিতে যাচ্ছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার প্রশাসনে। গত ২৬ এপ্রিল যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্টের এশিয়ান-আমেরিকান অ্যান্ড প্যাসিফিক আইল্যান্ডার্স বিষয়ক পরামর্শক কমিশনের সদস্য হিসেবে নীনার নাম প্রস্তাব করেন ওবামা।

যুক্তরাষ্ট্রের কেন্দ্রীয় সরকারের বিভিন্ন কর্মসূচিতে দেশটিতে বসবাসরত এশিয়ান এবং প্রশান্ত মহাসাগরীয় দ্বীপপুঞ্জের লোকজনের প্রবেশাধিকার বাড়ানোর মাধ্যমে তাদের জীবনমানের উন্নয়নে কাজ করে প্রেসিডেন্টের এই পরামর্শক কমিশন।

১৪ সদস্যের ওই কমিশনে তিন জন ভারতীয়কেও মনোনয়ন দেয়া হয়েছে।

হোয়াইট হাউসের এক বিবৃতিতে ওবামা বলেন, ‘আমি আনন্দের সঙ্গে জানাচ্ছি যে, ওই অভিজ্ঞ ও প্রত্যয়ী ব্যক্তিরা প্রশাসনে যোগ দিতে সম্মত হয়েছেন। সামনের মাস ও বছরগুলোতে আমি তাদের সঙ্গে কাজ করতে আগ্রহী’।

স্বামী আহসান নসরতউল্লাহ এবং দুই মেয়েকে নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের পেনসিলভানিয়া অঙ্গরাজ্যের ফিলাডেলফিয়ায়বাস করেন নীনা আহমদ। ১৯৯০ সালে তিনি ইউনিভার্সিটি অব পেনসিলভানিয়া থেকে  প্রাণ রসায়নে পিএইচডি ডিগ্রি  অর্জন করেন। এরপর বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে গবেষক হিসেবে কাজ করেন।

অভিবাসীদের সহায়তার জন্য ১৯৯৪ সালে গড়ে ওঠা ফিলাডেলফিয়াভিত্তিক রিয়েল এস্টেট ফাইন্যান্স অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট কনসালটিং কোম্পানি-জেএনএ ক্যাপিটলের অন্যতম উদ্যোক্তা নীনা। ফিলাডেলফিয়ায় বসবাসরত এশিয়ান-আমেরিকানদের উন্নয়নে দীর্ঘদিন ধরেই কাজ করে আসছেন তিনি।  কাজের স্বীকৃতি হিসেবে ২০০৯ সালে ফিলাডেলফিয়ার মেয়র মাইকেল নাটার বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত নীনাকে নিজের এশিয়ান-আমেরিকান বিষয়ক ২৫ সদস্যের কমিশনের চেয়ারপারসন নিয়োগ করেন।

শেয়ার করুন:
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.