নাইজেরিয়ায় আবারও স্কুলছাত্রী অপহরণ

Rape victউইমেন চ্যাপ্টার: নাইজেরিয়ার সন্দেহভাজন ইসলামি জঙ্গি সংগঠন বোকো হারামের সদস্যরা আরও আটটি মেয়েকে অপহরণ করে নিয়ে গেছে বলে খবর পাওয়া গেছে। রোববার রাতে একটি গ্রাম থেকে কিছু সশস্ত্র লোক সেনাবাহিনীর কায়দায় গাড়িতে করে এসে গুলি করে মেয়েদের তুলে নিয়ে যায়।

এদিকে গত মাসে দুশরও বেশি স্কুলছাত্রী অপহরণের কথা স্বীকার করার পাশাপাশি, তাদেরকে ক্রীতদাস হিসেবে বিক্রি করে দেয়ার পরিকল্পনাসহ বোকো হারামের প্রকাশিত ভিডিওকে ঘিরে ব্যাপক ক্ষোভ ছড়িয়ে পড়েছে। ওই ভিডিওতে দেখা যায়, সংগঠনটির নেতা আবুবকর শেকাউ কয়েকটি সাঁজোয়া যানের ওপর দাঁড়িয়ে বলছেন যে, ‘আমি তোমাদের মেয়েদের অপহরণ করেছি। আমি তাদের আল্লাহর নামে বাজারে বিক্রি করে দেবো’।

জঙ্গি সংগঠনটির নেতার এমন প্রকাশ্য বক্তব্যে দেশটির জনগণ ফুঁসে উঠেছে। তারা জানতে চাইছে, কি করে সংগঠনটির সরকারকে চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিতে পারে এবং সেনাবাহিনীই বা কেন ছাত্রীদের উদ্ধার করতে ব্যর্থ হয়।

এর আগে এই অপহরণের ঘটনাকে ‘জঘণ্য এবং অনৈতিক’ বলে বর্ণনা করেন, ব্রিটিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী উইলিয়াম হেগ। তিনি জানান, অপহৃতদের উদ্ধারে সক্রিয় সবধরনের সহযোগিতা দেওয়ার আশ্বাস দিয়েছিল ব্রিটেন।

এদিকে জাতিসংঘের মানবাধিকার সংস্থার মুখপাত্র বলছিলেন, যে পরিকল্পনার কথা বলছে বোকো হারাম, তা বাস্তবায়ন করলে ভয়াবহ অপরাধ ঘটাবে।

এর আগে বিবিসির এক খবরে বলা হয়, অপহৃত স্কুলছাত্রীদের প্রতিবেশি কোনো দেশে নিয়ে যাওয়া হয়েছে বলে স্থানীয় একজন নেতা জানিয়েছেন। ক্যামেরুন এবং শাদের সীমান্ত অতিক্রম করে কিছু সশস্ত্র লোককে দেখা গেছে মেয়েদের নিয়ে যেতে। আবার কিছুসংখ্যক মেয়েকে বাধ্য করা হয়েছে জঙ্গিদের বিয়ে করতে।  বর্নো প্রদেশের চিবক এলাকার একটি বোর্ডিং স্কুল থেকে ২৩০ জন স্কুলছাত্রীকে অপহরণ করে নিয়ে যায় জঙ্গিরা।

 

শেয়ার করুন:
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.