‘পাকিস্তানের নিন্দা প্রস্তাব অগ্রহণযোগ্য’

shirin sharmin 3উইমেন চ্যাপ্টার: একাত্তরে মানবতাবিরোধী জামায়াত নেতা আব্দুল কাদের মোল্লার মৃত্যুদণ্ড কার্যকরের পর পাকিস্তানের পার্লামেন্টে নিন্দা প্রস্তাব পাস করাকে ‘অগ্রহণযোগ্য’ ও ‘অনভিপ্রেত’ বলে মন্তব্য করেছেন জাতীয় সংসদের স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরী। রোববার জাতীয় জাদুঘর মিলনায়তনে এক অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন।

স্পিকার বলেন, “সব ধরনের আইনি প্রক্রিয়া অনুসরণ করে সর্বোচ্চ আদালতের মাধ্যমে যুদ্ধাপরাধের বিচারের রায় কার্যকর হয়েছে। এখানে কোনো দেশের বা অন্য কোনো ক্ষেত্র থেকে নিন্দা জানানোর সুযোগ নেই। এটা অগ্রহণযোগ্য ও অনভিপ্রেত।”গত ১২ ডিসেম্বর কাদের মোল্লার ফাঁসি কার্যকরের চার দিনের মাথায় বিষয়টি নিয়ে একটি প্রস্তাব পাস করে পাকিস্তানের পার্লামেন্ট। পাকিস্তানের ওই পদক্ষেপের পর তীব্র প্রতিক্রিয়া দেখায় বাংলাদেশ। ঢাকায় পাকিস্তানের হাই কমিশনারকে তলব করে এর ব্যাখ্যা চায় পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

যুদ্ধাপরাধীর ফাঁসির দাবিতে আন্দোলন চালিয়ে আসা গণজাগরণ মঞ্চ পাকিস্তান দূতাবাস অভিমুখে বিক্ষোভ মিছিল করে। রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে পাকিস্তানের পতাকা ও দেশটির কয়েক নেতার কুশপুতুল দাহ করা হয়।

এরপর শুক্রবার পাকিস্তানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র এক বিবৃতিতে বলেন, কাদের মোল্লার ফাঁসির বিষয়ে তাদের পার্লামেন্টে প্রস্তাব পাস করায় বাংলাদেশের ‘অভ্যন্তরীণ বিষয়ে হস্তক্ষেপ’ হয়নি। এদিকে পাকিস্তানের সাথে সবধরনের কূটনৈতিক সম্পর্ক সাময়িক স্থগিতের জন্য গণজাগরণ মঞ্চ আজ সকালে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে স্মারকলিপি দিয়েছে।

শেয়ার করুন:
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.