পাকিস্তানকে ‘না’ বলুন, গণজাগরণ মঞ্চের আলটিমেটাম

Pakistan Gonojagoron
ছবি: সংগৃহীত

উইমেন চ্যাপ্টার: পাকিস্তানের সাথে সকল ধরনের কূটনৈতিক সম্পর্ক সাময়িকভাবে স্থগিত করতে সরকারকে আগামীকাল বিকাল ৩টা পর্যন্ত সময় বেঁধে দিয়েছে গণজাগরণ মঞ্চ। বুধবার সন্ধ্যায় গুলশান-২ এর কূটনৈতিক পাড়ায় গণজাগরণ মঞ্চের বিক্ষোভ কর্মসূচি থেকে এ ঘোষণা দেন মঞ্চের মুখপাত্র ইমরান এইচ সরকার।

তিনি বলেন, “সরকার যদি এই সময়ের মধ্যে পাকিস্তানের সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্ক স্থগিত না করে তাহলে বৃহস্পতিবার বিকেল ৩টায় আবারও গুলশানের একই স্থানে সমাবেশ হবে এবং পাকিস্তান দূতাবাস ঘেরাও করবো।”

সারাদেশের গণজাগরণ মঞ্চের কর্মীদের নিজ নিজ এলাকায়ও বিকাল ৩টায় বিক্ষোভ মিছিল করারও আহ্বান জানান তিনি।

এসময় পাকিস্তান দূতাবাস ঘেরাও কর্মসূচিতে পুলিশের হামলার নিন্দা জানান ইমরান এইচ সরকার।
এদিকে পুলিশের গুলশান বিভাগের উপকমিশনার লুত্ফুল কবির গণজাগরণ মঞ্চের কর্মীদের ওপর পুলিশ চড়াও হওয়ার জন্য দুঃখ প্রকাশ করে ক্ষমা চেয়েছেন। তিনি এ ঘটনা তদন্তের আশ্বাস দিয়েছেন। তবে মঞ্চের পক্ষ থেকে দায়িত্বরত পুলিশ কর্মকর্তাকে ‘ক্লোজ’ করার দাবি জানানো হয়।

এর আগে বিকেলে পুলিশি বাধা উপেক্ষা করে গণজাগরণ মঞ্চের নেতা-কর্মীরা গুলশানে পাকিস্তান দূতাবাসের সামনে পৌঁছান। এ সময় তাঁরা পাকিস্তানবিরোধী স্লোগান দেন ও বিক্ষোভ করেন। সেখান থেকে তাঁদের ছত্রভঙ্গ করতে পুলিশ ধাওয়া দিলে বেশ কয়েকজন আহত হয়। তাদের মধ্যে মুক্তিযোদ্ধা ফেরদৌসী প্রিয়ভাষিনী, ছাত্রমৈত্রী নেতা বাপ্পাদিত্য বসু, গণজাগরণ মঞ্চের কর্মী নাফিজ বিন্দু এবং বনানী বিশ্বাস রয়েছেন।

পরে পাকিস্তান দূতাবাস এলাকা ছেড়ে গণজাগরণ মঞ্চের নেতা-কর্মীরা অস্ট্রেলীয় দূতাবাসের সামনে গিয়ে সমাবেশ করেন।

শেয়ার করুন:
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.