‘যেকোনো দিন রায় কার্যকর সম্ভব’

Kader Mollaউইমেন চ্যাপ্টার ডেস্ক: অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম বলেছেন, একাত্তরে মানবতাবিরোধী অপরাধে ফাঁসির দণ্ডপ্রাপ্ত কাদের মোল্লার ফাঁসির রায় যেকোনো দিনই করা সম্ভব। তাঁর মতে, এ ক্ষেত্রে আইনি কোনো বাধা নেই। আজ সোমবার সুপ্রিম কোর্টের সম্মেলনকক্ষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

অ্যাটর্নি জেনারেল বলেন, ‘আপিল বিভাগ বলেছেন, মৃত্যু না হওয়া পর্যন্ত দড়িতে ঝুলিয়ে কাদের মোল্লার মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করা হোক। এই দণ্ড তো সুপ্রিম কোর্ট দিয়ে দিয়েছেন। এটা কার্যকর করার বিষয়টি এখন বাকি আছে। এটা কখন কীভাবে করা হবে, এটা সরকার নির্দেশ দিয়ে জেল কর্তৃপক্ষকে দেবে, জেল কর্তৃপক্ষ সেটা কার্যকর করবে। আমি মনে করি, যেকোনো দিনই রায় কার্যকর করা সম্ভব।’

সাংবাদিকদের অপর প্রশ্নের জবাবে অ্যাটর্নি জেনারেল বলেন, ‘কাদের মোল্লার দণ্ডাদেশ কার্যকর করার ক্ষেত্রে রিভিউ চলবে না এবং জেল কোডের কোনো বিধান এখানে প্রয়োগ হবে না। কারাবিধি এখানে প্রযোজ্য হবে না। এখানে আপিল বিভাগের রায়টি অবগত করানো হয়েছে জেল কর্তৃপক্ষকে। যখন সরকার কারা কর্তৃপক্ষকে দণ্ডাদেশ কার্যকর করার জন্য নির্দেশ প্রদান করবে, তখনই এটা কার্যকর হবে। যেকোনো দণ্ডপ্রাপ্ত ব্যক্তি রাষ্ট্রপতির কাছে প্রাণভিক্ষা চাইতে পারেন। তিনি যদি করেন, ভালো কথা। সেটা রাষ্ট্রপতির কাছে দেওয়া যাবে। রাষ্ট্রপতির কাছে উনি কবে ক্ষমা প্রার্থনা করবেন, তার জন্য তো রাষ্ট্র বসে থাকবে না।’

মাহবুবে আলম বলেন, ‘দণ্ডপ্রাপ্ত ব্যক্তি যদি রাষ্ট্রপতির কাছে প্রাণভিক্ষা করতে চায়, আমরা তো তাকে বিরত করতে পারি না।’ এই প্রক্রিয়াটি কত দিনের মধ্যে হবে, অপর প্রশ্নে মাহবুবে আলম বলেন, ‘সেই প্রক্রিয়াটির অংশ হিসেবে জেল কর্তৃপক্ষ তাঁকে (কাদের মোল্লা) জিজ্ঞেস করবেন, তিনি প্রাণভিক্ষা চাইবেন কি না?’

এখন কি যেকোনো মুহূর্তে রায় কার্যকরের সুযোগ আছে? এ প্রশ্নের জবাবে মাহবুবে আলম সাংবাদিকদের বলেন, ‘এখন ২০(২) ধারা অনুযায়ী রাষ্ট্র বা সরকার যখনই কারা কর্তৃপক্ষকে বলবেন, তখন কারা কর্তৃপক্ষ একটা দিন ধার্য করে সেটাকে কার্যকর করবে।’

শেয়ার করুন:
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.