এবার টুইটারের পরিচালনা পর্ষদে নারী

মার্জরি স্কারডিনোউইমেন চ্যাপ্টার: কড়া সমালোচনার মুখে শেষপর্যন্ত নতি স্বীকার করতেই হলো সামাজিক যোগাযোগের সাইট টুইটার কর্তৃপক্ষকে। প্রতিষ্ঠানটির পরিচালনা পর্ষদে কোন নারী সদস্য না থাকায় অনেকদিন ধরেই এ নিয়ে আলোচনা-সমালোচনার ঝড় সামলাতে হয়েছে প্রতিষ্ঠানটিকে। অবশেষে ইয়াহু, মাইক্রোসফট, ফেসবুকের মতো  টুইটারেও যুক্ত হলেন একজন নারী সদস্য।

বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, প্রকাশনা প্রতিষ্ঠান পিয়ারসনের সাবেক নির্বাহী মার্জরি স্কারডিনোকে টুইটারের পরিচালনা পর্ষদে যুক্ত করা হয়েছে।

নারীর ক্ষমতায়নের এ যুগে টুইটারের মতো একটি প্রতিষ্ঠানের পরিচালনা পর্ষদে কোনো নারী সদস্য না থাকায় দীর্ঘদিন ধরেই সমালোচনার মুখে পড়েছিল প্রতিষ্ঠানটি। অবশেষে গত ৫ ডিসেম্বর স্কারডিনোকে পরিচালনা পর্ষদে অন্তর্ভুক্ত করার সিদ্ধান্ত নেয় প্রতিষ্ঠানটি।

তবে এবারই প্রথম প্রতিষ্ঠান পরিচালনা করছেন না মার্জরি স্কারডিনো। এর আগে তিনি ইকোনমিস্ট গ্রুপের প্রধান নির্বাহী ছাড়াও ফিনল্যান্ডের মুঠোফোন নির্মাতাপ্রতিষ্ঠান নকিয়ার পরিচালনা পর্ষদে কাজ করেছিলেন।

সম্প্রতি পাবলিক লিমিটেড প্রতিষ্ঠান হিসেবে শেয়ারবাজারে আসার পর থেকেই টুইটার তাদের পরিচালনা পর্ষদে কোন নারী না থাকায় টুইটারের প্রধান নির্বাহী ডিক কস্টোলোকে স্ট্যানফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের ফেলো ভিভেক ওয়াধাওয়া এ বিষয়টি নিয়ে ফেসবুকে কঠোর সমালোচনা করেন।

টুইটার কর্তৃপক্ষ জানিয়েছেন, পরিচালনা পর্ষদের সদস্য হিসেবে স্কারডিনো টুইটারের অডিট কমিটির দায়িত্বে থাকা ডেভিড রোজেনব্লাটের স্থলাভিষিক্ত হবেন। টুইটারে যোগ দেওয়ায় একটি নির্দিষ্ট সংখ্যক শেয়ার পাচ্ছেন স্কারডিনো।

শেয়ার করুন:
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.