কাদের মোল্লার ফাঁসির রায় লেখা শেষ

Kader Molla 2উইমেন চ্যাপ্টার: একাত্তরে মানবতাবিরোধী অপরাধের দায়ে জামায়াতে ইসলামীর সহকারী সেক্রেটারি জেনারেল আবদুল কাদের মোল্লার বিরুদ্ধে দেওয়া মৃত্যুদণ্ডাদেশের রায় লেখা শেষ হয়েছে।
আজ রোববার সন্ধ্যায় যুদ্ধাপরাধ ট্রাইব্যুনালে প্রসিকিউটরদের সমন্বয়ক অতিরিক্ত অ্যাটর্নি জেনারেল এম কে রহমান একথা জানিয়ে বলেন, ‘কাদের মোল্লার ফাঁসির পূর্ণাঙ্গ রায় লেখা শেষ হয়েছে। জানতে পেরেছি বিচারপতিরা রায় লেখা শেষ করেছেন। আশা করি, আনুষ্ঠানিক প্রক্রিয়া শেষে দু-এক দিনের মধ্যে পূর্ণাঙ্গ রায় প্রকাশিত হবে।’

এদিকে কাদের মোল্লার আইনজীবী তাজুল ইসলাম বলেন, ‘পূর্ণাঙ্গ রায় পাওয়ার পরপরই ৩০ দিনের মধ্যে রায় পুনর্বিবেচনা চেয়ে আবেদন করব।’

কাদের মোল্লার দণ্ডাদেশের বিরুদ্ধে আসামি ও রাষ্ট্রপক্ষের আপিলের ওপর শুনানি শেষে চলতি বছরের ১৭ সেপ্টেম্বর মানবতাবিরোধী অপরাধের দায়ে কাদের মোল্লাকে মৃত্যু না হওয়া পর্যন্ত ফাঁসিতে ঝুলিয়ে মৃত্যুদণ্ড কার্যকরের রায় দেন আপিল বিভাগ। ওই দিন রায়ের সংক্ষিপ্ত অংশ ঘোষণা করা হয়। প্রধান বিচারপতি মো. মোজাম্মেল হোসেনের নেতৃত্বাধীন পাঁচ বিচারপতির বেঞ্চ (৪: ১) সংখ্যাগরিষ্ঠ মতের ভিত্তিতে এ রায় ঘোষণা করেন।

এ ক্ষেত্রে কাদের মোল্লাকে দোষী সাব্যস্ত করার ব্যাপারে আপিল বিভাগের পাঁচ বিচারপতি একমত হলেও মৃত্যুদণ্ডের বিষয়ে এক বিচারপতি ভিন্নমত দেন। সংক্ষিপ্ত আদেশে তা জানানো হয়নি। আদালত সূত্র জানায়, রায় লিখেছেন তিনজন বিচারপতি।

মানবতাবিরোধী অপরাধের দায়ে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল-২ গত ৫ ফেব্রুয়ারি কাদের মোল্লাকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেওয়ার পর তাঁর সর্বোচ্চ শাস্তির দাবিতে তরুণসমাজের ডাকে শাহবাগে গড়ে ওঠে গণজাগরণ মঞ্চ। পরে দণ্ডাদেশের বিরুদ্ধে আপিলের সমান সুযোগ রেখে ১৭ ফেব্রুয়ারি আন্তর্জাতিক অপরাধ (ট্রাইব্যুনালস) সংশোধন বিল, ২০১৩ জাতীয় সংসদে পাস হয়। এই আইনের ভিত্তিতে গত ৩ মার্চ সর্বোচ্চ শাস্তি চেয়ে আপিল করে রাষ্ট্রপক্ষ। আর সাজা থেকে অব্যাহতি চেয়ে পরদিন আপিল করেন কাদের মোল্লা। গত ১ এপ্রিল থেকে শুনানি শুরু হয়।


শেয়ার করুন:
Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.