নারীর প্রতি সহিংসতা প্রতিরোধে শুরু হচ্ছে ১৬দিনের কর্মসূচি

stop violenceউইমেন চ্যাপ্টার: বিশ্বব্যাপী নারীর প্রতি সহিংসতা বন্ধে ব্যাপকভাবে সচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে আগামী ২৫ নভেম্বর থেকে ১০ ডিসেম্বর পর্যন্ত শুরু হতে যাচ্ছে ১৬ দিনের কর্মসূচি। এ উপলক্ষে বিভিন্ন বেসরকারি সংস্থা, নারী সংগঠন বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করতে যাচ্ছে।

বিশ্বের অন্যান্য দেশের মতো বাংলাদেশেও এ লক্ষ্যে বিস্তারিত কর্মসূচি পালনের লক্ষ্যে এরই মধ্যে বিভিন্ন সংগঠন নানা উদ্যোগ নিয়েছে।

ব্যক্তি উদ্যোগেও নেওয়া হচ্ছে নানা পরিকল্পনা। শুধুমাত্র নারীর প্রতি সহিংসতা বন্ধই নয়, সহিংসতা যাতে আর না ঘটে সেই বিষয়গুলোও মাথায় রেখে কর্মসূচি হাতে নেওয়া হচ্ছে।…..

নারীর প্রতি সহিংসতা প্রতিরোধে ২৫ নভেম্বর থেকে ১০ ডিসেম্বর আন্তর্জাতিক মানবাধিকার দিবস পর্যন্ত ১৬ দিনব্যাপী নারীর প্রতি সহিংসতা ও নিপীড়ন এবং জেন্ডার-বেইসড ভায়োলেন্স প্রতিরোধে কিছু কর্মসূচি গ্রহণ করেছে শাহবাগকেন্দ্রিক কয়েকটি সংগঠন।

এ উপলক্ষে গত ২০ নভেম্বর এক প্রাথমিক সভায় কর্মসূচির নানা উপায় নিয়ে আলোচনা হয়। এতে সহিংসতা বন্ধের বিষয়ের পাশাপাশি প্রতিরোধের (prevention) বিষয়টি মাথায় রেখে এবং বাস্তব অবস্থা বিবেচনা করে (doable yet strategic and value addition) নিচের কর্মসূচী গ্রহন ও বাস্তবায়নের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

গত একবছরে (২০১৩) দেশে নারীর প্রতি ধর্ষণ-সহ সকল প্রকার সহিংসতার যে সব খবর প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ায় প্রকাশ/প্রচার হয়েছে এবং সরকারি-বেসরকারি পর্যায়ে সেসব নিয়ে যে কাজ হয়েছে, উদ্যোগ নিওয়া হয়েছে, আইনি-বিচার হয়েছে তার একটি তালিকা তৈরি করা হবে।

দ্বিতীয়ত, একটি সেমিনার বা রাউন্ড টেবিলের আয়োজন করা হবে। এর মাধ্যমে (১) বিষয়টি নিয়ে আমাদের উদ্বেগের কারণ সমূহ তুলে ধরা হবে; (২) আমরা কি করনীয় বলে মনে করি তা প্রচার ও প্রকাশ করা হবে; (৩) নারীর প্রতি সহিংসতা প্রতিরোধে বাংলাদেশে বর্তমানে যে সব সরকারি-বেসরকারি সংস্থা কাজ করছে তাদের মধ্যে নতুন করে বিষয়টি ও তার ভয়াবহতা নিয়ে ভাবনা ও উদ্বেগ সৃষ্টি ও তাদের ওপর নতুন ও কার্যকরি কৌশল ও কর্মপন্থা গ্রহণের বিষয়ে চাপ সৃষ্টি করা হবে।

তৃতীয়ত, আগামী এক বছরের জন্য একটি ক্যাম্পেইন শুরু করা হবে। যার মূল ফোকাস থাকবে প্রতিরোধের ওপর এবং পুরুষের সক্রিয় ভূমিকা ও অংশগ্রহণ বাড়ানো। এই ক্যাম্পেইন ঢাকা ও ঢাকার বাইরে পরিচালিত হবে। এই ক্যাম্পেইনের ফলাফল ও তার একটি বিশ্লেষণ ২৫ নভেম্বর ২০১৪-তে প্রকাশ করা হবে।

সভায় উপস্থিত সকলেই নীতিগতভাবে একমত হন কর্মসূচির বিষয়ে, তবে  সবগুলি কর্মসূচির তারিখ ও সময় নির্ধারণ করা হয়নি এখনও। আজ ২২ নভেম্বর শুক্রবার আবারও একটি সভা ডাকা হয়েছে যেখানে কাজের দায়িত্ব বণ্টন এবং পুরো কর্মসূচি পালনে একটি বাজেট প্রণয়নের বিষয়গুলো নিয়ে আলোচনা হওয়ার কথা রয়েছে।

পাশাপাশি অন্য সংগঠনগুলো এই ১৬ দিনব্যাপী কি কি কর্মসূচি নিতে যাচ্ছে সেগুলোর সাথে সমন্বয় করার প্রয়োজনীয়তার ওপরও গুরুত্ব আরোপ করা হয়েছে প্রথম সভায়।

শেয়ার করুন:
Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.