এটিএম বুথে নারীর ওপর হামলা

ATM Hamlaউইমেন চ্যাপ্টার ডেস্ক: ভারতের বেঙ্গালুরুতে এটিএম বুথে দুর্বৃত্তের হামলায় গুরুতর আহত জ্যোতি উদয়ের (৪৪) অবস্থা এখন আশংকামুক্ত। গত মঙ্গলবার তার ওপর হামলা চালিয়ে অর্থ ও জিনিসপত্র ছিনিয়ে নিয়ে যায় এক দুর্বৃত্ত। চাপাতির আঘাতে ওই নারী মারাত্মক আহত হন। পুরো ঘটনাটি এটিএম বুথের সিসি ক্যামেরায় ধরা পড়লেও পুলিশ এখনও অপরাধীকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি।

টাইমস অফ ইন্ডিয়া জানায়, পেশায় ব্যাংকার জ্যোতি উদয় আর আর নগরের বাসিন্দা। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় তার শরীরে বেশ কয়েকটি অস্ত্রোপচার করা হয়েছে। তাকে নিউরো ইনটেনসিভ কেয়ার ইউনিটে রাখা হয়েছে। তার ব্যবসায়ী স্বামী উদয় কুমার সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, জ্যোতির শরীরে প্রচণ্ড ব্যথা, তবে সুস্থ হয়ে উঠছেন। তার মাথায় দুটো গুরুতর আঘাত রয়েছে। তবে ঠিকমতো কথা বলতে পারছেন না।

এনডিটিভির খবরে বলা হয়, ব্যাঙ্গালুরু শহরের কেন্দ্রস্থলে সিটি করপোরেশন ভবনের বিপরীত দিকের একটি এটিএম বুথে জ্যোতি গিয়েছিলেন টাকা তুলতে। কিছু বুঝে ওঠার আগেই তাঁকে অনুসরণ করে আসা এক যুবক এটিএম বুথে ঢুকে বুথের শাটার নামিয়ে দেন। এরপর তিনি ওই নারীর ব্যাগ ছিনিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করেন। এতে তিনি বাধা দিলে যুবকটি প্রথমে বন্দুকের মতো একটি অস্ত্র বের করেন। পরে চাপাতি বের করে তিনি ওই নারীকে কোপ মারেন। এতে জ্ঞান হারান ওই নারী।

ঘটনার প্রায় তিন ঘণ্টা পর কয়েকজন ছাত্র এটিএম বুথের বাইরে রক্ত দেখতে পেয়ে বুথের শাটার সরিয়ে আহত নারীকে উদ্ধার করে পুলিশকে খবর দেয়। হামলার সময় ওই বুথে কোনো নিরাপত্তারক্ষী ছিল না।

এনডিটিভি জানায়, মাথায় আঘাত পেলেও হামলার শিকার ওই নারীর জ্ঞান ফিরেছে। তবে তাঁর শরীরের ডান দিক অবশ হয়ে গেছে। চিকিৎসকেরা বলছেন, তার সুস্থ হয়ে উঠতে বেশ কয়েক মাস লাগবে।

বেঙ্গালুরুর পুলিশ জানায়, হামলাকারী ওই নারীর কাছে থাকা অর্থ, মোবাইল ফোন ও ক্রেডিট কার্ডসহ ব্যাগটি নিয়ে যায়। তবে তাঁর গায়ে থাকা গয়নাগুলো নেয়নি।

এ হামলার ঘটনাটি এটিএম বুথের নিরাপত্তা ক্যামেরায় ধরা পড়ে। এতে হামলাকারীর চেহারা স্পষ্টভাবে বোঝা গেলেও এখন পর্যন্ত তাঁকে শনাক্ত বা গ্রেপ্তার করা সম্ভব হয়নি।

শেয়ার করুন:
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.