‘সুষ্ঠু ও বিশ্বাসযোগ্য নির্বাচন দেখতে চায় যুক্তরাষ্ট্র’

Hasina-Nishaউইমেন চ্যাপ্টার ডেস্ক: বাংলাদেশ সফররত যুক্তরাষ্ট্রের দক্ষিণ ও মধ্য এশিয়াবিষয়ক সহকারী পররাষ্ট্রমন্ত্রী নিশা দেশাই বিসওয়াল বলেছেন, তারা আশা করছেন বাংলাদেশে অবাধ, সুষ্ঠু ও বিশ্বাসযোগ্য নির্বাচন হবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে বিকালে গণভবনে এক বৈঠকে নিশা দেশাই একথা বলেন।  প্রধানমন্ত্রীও তাঁকে এ বিষয়ে আশ্বস্ত করেছেন বলে জানা গেছে।

“প্রধানমন্ত্রী তাকে বলেছেন বিরোধীদলসহ সব রাজনৈতিক দল আগামী নির্বাচনে অংশ নেবে বলে তিনি আশা করছেন। জনগণ তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করবে।”

শনিবার দুপুরে ঢাকা পৌঁছান নিশা দেশাই। পরে সন্ধ্যায় মার্কিন রাষ্ট্রদূত ড্যান মজীনার বাসায় তিনি বিভিন্ন পেশার ছয় জনের সঙ্গে বৈঠক করেন। ওই বৈঠকেও নিশা দেশাই অবাধ, সুষ্ঠু ও বিশ্বাসযোগ্য নির্বাচনের বিষয়ে গুরুত্বারোপ করেন। পাশাপাশি বাংলাদেশের উন্নয়নেরও প্রশংসা করেন তিনি।

এর আগে গ্রামীণ ব্যাংকের প্রতিষ্ঠাতা মুহাম্মদ ইউনূস বলেন, আর্থ-সামাজিক ক্ষেত্রে বাংলাদেশের অগ্রযাত্রা ব্যাহত হোক-তা আমেরিকা চায় না। ঢাকায় রোববার যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূতের বাসায় সফররত নিশা দেশাইয়ের সঙ্গে বৈঠকশেষে তিনি একথা বলেন। ইউনূস জানান, দেশের চলমান রাজনৈতিক পরিস্থিতি, গ্রামীণ ব্যাংক, সামাজিক ব্যবসাসহ বিভিন্ন বিষয়ে তাদের মধ্যে কথা হয়েছে।

দেশে যখন রাজনৈতিক সংকট চরম আকার ধারণ করেছে তখন ঢাকায় দক্ষিণ ও মধ্য এশিয়া বিষয়ক সহকারী পররাষ্ট্রমন্ত্রী নিশা দেশাই বিসওয়ালের সফরকে ঘিরে রাজনীতিবিদ থেকে শুরু করে আশান্বিত দেশের সাধারণ মানুষ। নিশা দেশাইয়ের এই সফর রাজনীতির চলমান সংকট সমাধানে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে বলে মনে করছেন কূটনৈতিক বিশ্লেষকরা।

তবে বিবিসি আয়োজিত বাংলাদেশ সংলাপে অংশ নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টা এইচ টি ইমাম বলেছেন, দেশের রাজনৈতিক সংকট নিরসনে বিদেশি কূটনীতিকদের উদ্যোগের কোন প্রয়োজন নেই। বিএনপিই এসব কূটনীতিকদের প্রশ্রয় দিচ্ছে বলেও তিনি অভিযোগ করেন। তবে এই অভিযোগ অস্বীকার করেছেন সংলাপে অংশগ্রহণকারী বিএনপির জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য অবসরপ্রাপ্ত ব্রিগেডিয়ার জেনারেল আসম হান্নান শাহ। তিনি বলেছেন, বিদেশিদের এধরনের তৎপরতা বাংলাদেশে নতুন কিছু নয়। তবে রাজনীতিকরা বিদেশিদের প্রশ্রয় না দিয়ে নিজেরাই সংকট সমাধানে উদ্যোগী হওয়া উত্তম।

শেয়ার করুন:
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.