ফিলিপাইনে জাতীয় দুর্যোগ ঘোষণা

Phillipinesউইমেন চ্যাপ্টার: ফিলিপাইনের দ্বীপপুঞ্জে টাইফুন হাইয়ানের ধ্বংসযজ্ঞকে ‘ব্যাপক এবং অপ্রত্যাশিত’ হিসেবে বর্ণনা করেছে জাতিসংঘ। জীবিতদের জন্য খাদ্য এবং পানি সরবরাহ করা আর মৃতদের সৎকার করাকেই এখন অগ্রাধিকার দেওয়া হচ্ছে।

ত্রাণ তৎপরতায় সহায়তার জন্য জাতিসংঘ তার কেন্দ্রীয় জরুরি তহবিল থেকে আড়াই কোটি ডলার ছাড় করেছে।

কর্মকর্তাদের হিসেবে টাইফুনের আঘাতে ফলে প্রায় এক কোটি মানুষ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে এবং সাড়ে ছ লাখেরও বেশী মানুষ বাস্তুচ্যুত হয়েছে।

রাস্তাঘাট ভেঙে পড়ায় বিচ্ছিন্ন অঞ্চলে ত্রাণ তৎপরতা চালাতে বেশ বেগ পেত হচ্ছে ত্রাণকর্মীদের।

গত শুক্রবার আঘাত হানা টাইফুন হাইয়ানের আঘাতে পূর্বাঞ্চলীয় শহর টাকলোবান এবং অন্যান্য জায়গায় ১০,০০০ মানুষ নিহত  হয়েছে বলে দেশের কর্মকর্তারা বলছেন। লক্ষ লক্ষ মানুষ গৃহহীন হয়েছে।

ফিলিপাইনের রেড ক্রসের প্রধান টাইফুন হাইয়ানের আঘাতের পরের দৃশ্যকে ‘সর্বাত্মক ধ্বংসলীলা’ বলে বর্ণনা করেছেন। শুক্রবারে দেশের পূর্বাঞ্চলীয় উপকূলীয় প্রদেশ লেয়টে এবং সামারে আঘাত হানে এই টাইফুন।

হাইয়ানকে বলা হচ্ছে ইতিহাসের সবচেয়ে শক্তিশালী ঝড়, যা কিনা সমুদ্র থেকে সৃষ্ট হয়ে জমিতে আঘাত হেনেছে।

শেয়ার করুন:
Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.