গলফার সিদ্দিকুর দেশের গর্ব

siddikur+3উইমেন চ্যাপ্টার: হরতালের দেশে, রাজনীতির গেঁড়াকলে দেশের মানুষ যখন বিপর্যস্ত, ঠিক তখনই এক পশলা আনন্দ বয়ে নিয়ে এলেন গলফার সিদ্দিকুর রহমান। শেষ দিনের খেলায় অনেক নাটকীয়তার পরও উত্তেজনাপূর্ণ খেলায় চ্যাম্পিয়ন হয়ে বিদেশের মাটিতে আবারও দেশের নাম উজ্জ্বল করলেন তিনি।

এশিয়ার ২২৫ জন গলফারের র‍্যাংকিংয়ে সিদ্দিকুরের অবস্থান এখন ২৫ এবং বিশ্বের ১০০০ গলফারের মধ্যে ২৪৭ তম।

গলফ খেলা দেশে এখনও তেমন জনপ্রিয় না হলেও বিদেশে এ নিয়ে মাতামাতি যথেষ্টই। এই গলফেই সিদ্দিকুরের এটা দ্বিতীয় গুরুত্বপূর্ণ শিরোপা। মাত্র এক শটের ব্যবধানে ভারতের অনির্বাণ লাহিড়ীকে হারিয়ে জিতলেন হিরো ইন্ডিয়ান ওপেন।

৭২ শটের খেলায় প্রথম তিন দিন সিদ্দিকুর যথাক্রমে খেলেছিলেন ৬৬, ৬৬ ও ৬৭ শট। সব মিলিয়ে তিন দিনে ‘পার’-এর চেয়ে ১৭ শট কম খেলেছিলেন। দুবারের এশিয়ান ট্যুর চ্যাম্পিয়ন চৌরাসিয়া তাঁর পিছু তাড়া করছিলেন ভালোমতোই। এর আগেও বেশ কয়েকটি টুর্নামেন্টে এগিয়ে থাকা সত্ত্বেও চতুর্থ দিনে এসে তাকে খেই হারিয়ে ফেলতে দেখা গেছে। আজও শিরোপা প্রায় হাতছাড়াই হতে যাচ্ছিল। ৭৫টি শট লেগেছে তাঁর। পারের চেয়ে বেশি খেলেছেন তিনটি শট।

কিন্তু শেষ দু’টি হোলে মাথা ঠাণ্ডা রেখে ইন্ডিয়ান ওপেনের সুবর্ণ জয়ন্তীতে খ্যাতনামা ভারতীয় গলফারদের হতাশ করে শিরোপা জিতে নেন বাংলাদেশের সেরা এই গলফার।

চারদিনে সব মিলিয়ে পারের চেয়ে ১৪ শট কম খেলেছেন তিনি। দ্বিতীয় হওয়া অনির্বাণ খেলেছেন ১৩টি কম শট। সব মিলিয়ে সিদ্দিকুর খেলেছেন ২৭৪টি শট, অনির্বাণ খেলেছেন একটি বেশি।

এই টুর্নামেন্ট জয়ের ফলে বাংলাদেশি মুদ্রায় প্রায় দুই কোটি টাকা জিতলেন সিদ্দিকুর। সবচেয়ে বড় কথা, গলফ বিশ্বকাপে অংশ নেওয়ার আগে পেলেন দারুণ আত্মবিশ্বাস। প্রথম বাংলাদেশি হিসেবে বিশ্বকাপ গলফে খেলতে যাচ্ছেন সিদ্দিকুর। অস্ট্রেলিয়ার মেলবোর্নে আগামী ২১ থেকে ২৪ নভেম্বর এই প্রতিযোগিতা হবে।

বিশ্বকাপের প্রস্তুতি হিসেবে এর আগে ১৪ থেকে ১৭ নভেম্বর মেলবোর্ন মাস্টার্স গলফ টুর্নামেন্টে অংশ নেবেন তিনি।

শেয়ার করুন:
Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.