ফোনালাপ প্রকাশ করাকে ‘অনৈতিক’ বললেন খালেদা

18_BNP+rally_071113উইমেন চ্যাপ্টার: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে টেলিফোনে আলাপের অডিও প্রকাশ করাকে ‘অনৈতিক’ ‘বেআইনী’ বলে অভিযোগ করেছেন বিরোধীদলীয় নেত্রী খালেদা জিয়া। এজন্য তিনি সরকারকে দায়ী করে বলেছেন, সংলাপে সরকারের যে আন্তরিকতার অভাব রয়েছে, এর মধ্য দিয়ে তা প্রমাণিত হয়েছে।

বৃহস্পতিবার সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে বিএনপির সমাবেশে প্রচারিত ভিডিও বক্তৃতায় বিরোধীদলীয় নেতা একথা বলেন। তিনি অভিযোগ করে বলেন,  “আমার সঙ্গে টেলিফোনে করা আলোচনা গোপনে রেকর্ড করে তা সরকারি উদ্যোগে প্রচার করা হয়েছে। এই রেকর্ডিংয়ের কথা আমাকে আগে জানানো হয়নি। এমনকি সেটি প্রচারের ব্যাপারে আমার কোনো সম্মতিও নেওয়া হয়নি। এটা সম্পূর্ণ অনৈতিক ও বেআইনি।”

নির্বাচনকালীন সরকার নিয়ে সংলাপের আহ্বান জানিয়ে গত প্রধানমন্ত্রী গত ২৬ অক্টোবর টেলিফোন করেন বিরোধীদলীয় নেতাকে। তাদের মধ্যকার ওই আলোচনার অডিও পরে গণমাধ্যমে প্রচার হয়। বিএনপি এজন্য সরকারকে দায়ী করলেও তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু বার বারই বলেছেন, এতে সরকারের কোনো সম্পৃক্ততা নেই।

খালেদা জিয়া বলেন, “প্রধানমন্ত্রী এবং তার দায়িত্বশীল মন্ত্রীরা সভা-সমাবেশে, এমনকি জাতীয় সংসদেও আমার, আমার পরিবারের সদস্যবৃন্দ ও আমাদের দলের নেতৃবৃন্দ সম্পর্কে ক্রমাগত অরুচিকর ও ভিত্তিহীন নানা কুৎসা রটিয়ে থাকেন। এর জবাব দিতে আমার রুচিতে বাধে।”

“সাম্প্রতিক সংবাদ-সম্মেলনে আমি এই ব্যক্তি-আক্রমণের রাজনীতি থেকে সকলকে বেরিয়ে আসার আহ্বান জানাই। তারপরও টেলিফোনে আমন্ত্রণ জানাবার সময় প্রধানমন্ত্রী আমাকে সরাসরি বিভিন্ন বিষয়ে অভিযুক্ত করে তীর্যক মন্তব্য করতে থাকেন। আলোচনার প্রস্তাব দিয়ে ফোনে দাওয়াত করার সময় সদিচ্ছা থাকলে কেউ এমন অভিযোগ করে, তা আমার জানা ছিল না।”

বর্তমান সঙ্কট থেকে উত্তরণের জন্য প্রধানমন্ত্রীর কাছে আহ্বান জানিয়েও ফল পাননি দাবি করে বিরোধীদলীয় নেতা বলেন, “সংলাপ ও শান্তিপূর্ণ সমাধানের ব্যাপারে সরকারের যে কোনো সদিচ্ছা নেই, এর মধ্যে দিয়ে তা প্রমাণিত হয়েছে।”

শেয়ার করুন:
Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.