নির্বাচন করতে পারবেনা জামায়াত

0

Election+Commissionউইমেন চ্যাপ্টার ডেস্ক: আদালতের রায়েই জামায়াতের নিবন্ধন বাতিল হয়ে গেছে বলে জানালেন নির্বাচন কমিশনার মো. শাহনেওয়াজ।

এই রায়ের ফলে দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে দলীয়ভাবে দাঁড়িপাল্লা প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করতে পারবেনা দলটি।

তিনি বলেন, “এখন আর জামায়াতের নিবন্ধন নেই। আদালতের আদেশের পরই দলটির নিবন্ধন বাতিল হয়ে গেছে। আপাতত দলটি নির্বাচনে অংশ নিতে পারবে না।”

জামায়াতের নিবন্ধন বাতিল করে আদালতের দেয়া পূর্ণাঙ্গ রায় হাতে পাওয়ার একদিন পরে সাংবাদিকদের এমনটিই জানালেন এই নির্বাচন কমিশনার।

গত ১ অগাস্ট জামায়াতের নিবন্ধন অবৈধ ঘোষণা করে রায় প্রধান করে হাইকোর্ট।

নির্বাচন কমিশনের পক্ষ থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে জামায়াতকে এ বিষয়ে জানানো হবে কি না তা জানতে চাইলে শাহজেওয়াজ বলেন, “১ অগাস্ট রায় ঘোষণার পর জামায়াতের নিবন্ধন অবৈধ ঘোষণার কথা ইসির ওয়েবসাইটে দেয়া হয়েছে। এটাই আনুষ্ঠানিকতা, এটাই নোটিশ। আলাদা করে কিছু দেয়ার নেই। আদালতের শুনানিতে জামায়াতও অংশ নিয়েছে, তারা রায় তখনই জেনে গেছে।”

গত শনিবার ১৫৮ পৃষ্ঠার পূর্ণাঙ্গ রায় প্রকাশিত হয়। গতকাল বুধবার তার একটি অনুলিপি হাতে পায় ইসি।

রায়ে আদালত কোন অবজারভেশন রেখেছে কি না তা খতিয়ে দেখবেন বলেও জানিয়েছেন তিনি।

বাংলাদেশের সংবিধানের সাথে সাংঘর্ষিক হওয়াত সংশোধনের শর্তসাপেক্ষে ২০০৮ সালের ৪ নভেম্বর দাঁড়িপাল্লা প্রতীকে জামায়াতকে নিবন্ধন দেয় ইসি।

শেয়ার করুন:
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

লেখাটি ৬ বার পড়া হয়েছে


উইমেন চ্যাপ্টারে প্রকাশিত সব লেখা লেখকের নিজস্ব মতামত। এই সংক্রান্ত কোনো ধরনের দায় উইমেন চ্যাপ্টার বহন করবে না। উইমেন চ্যাপ্টার এর কোনো লেখা কেউ বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করতে পারবেন না।

Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.