কৃষি উন্নয়নে নারীর ভূমিকা

0

কৃষিনির্ভর বাংলাদেশের অর্থনৈতিক চালিকাশক্তি কৃষি। কৃষিক্ষেত্রে নারীর অবদান অনস্বীকার্য। পৃথিবীর সূচনা থেকেই নারী মানবসম্পদ উন্নয়নসহ সমাজ ও পারিবারিক কাজের সঙ্গে ওতপ্রোতভাবে জড়িত। কৃষির বিভিন্ন কর্মকাণ্ড বিশেষ করে শস্য কর্তনোত্তর ফসল প্রক্রিয়াজাতকরণ, সংরক্ষণ, বীজ উৎপাদন, হাঁস-মুরগি ও গবাদিপশু পালন, বসতবাড়ির আঙ্গিনায় সবজি ও ফল উৎপাদন, সামাজিক বনায়ন ইত্যাদিতে অগ্রণী ভূমিকা পালন করছে। বিশ্বের অর্ধেক নারী উন্নয়নশীল দেশে বাস করে। কৃষি উৎপাদনে ৪০-৮০% (দেশ অনুসারে ভিন্ন) দায়িত্ব নারীরা পালন করে। এশিয়া মহাদেশের চাল উৎপাদনের ক্ষেত্রে শতকরা ৫০ থেকে ৯০ ভাগ শ্রম নারীরা দিয়ে থাকেন।
kr
কৃষি উৎপাদন-প্রক্রিয়া বিশ্লেষণ করলে দেখা যায়, প্রাক বপন-প্রক্রিয়ার মধ্যে বীজ সংগ্রহ, সংরক্ষণ এবং বীজ প্রস্তুতি_ এ কাজগুলো মূলত নারীরাই করে থাকেন। বীজধান নির্বাচনের পর ঝাড়া, শুকানো, মাটির ড্রাম, টিন বা চটের বস্তায় সংরক্ষণ করতে হয় এবং কিছুদিন পরপর রোদে শুকাতে হয়। বীজ শুকানোর কাজ সঠিকভাবে করতে হয়, এর ওপর নির্দিষ্ট পরিমাণ আলো/বাতাস লাগাতে হয়। তাহলেই ভালো অঙ্কুরোদগম ক্ষমতাসম্পন্ন বীজ পাওয়া যায়। একজন অভিজ্ঞ নারী সঠিকভাবে বীজ সংরক্ষণ করতে পারেন। আদিবাসী ছাড়াও এলাকাভিত্তিক বিভিন্ন অঞ্চলে মাঠ ফসল উৎপাদনে চারা রোপণ ও তোলার কাজ নারীরা করে থাকেন। শস্য কর্তনোত্তর ফসল প্রক্রিয়াজাতকরণের প্রতিটি কাজে নারীর ভূমিকা স্বীকৃত। এমনকি উদ্ভিদ সংরক্ষণসহ ভেষজ ওষুধ ব্যবহারে নারীরা প্রধান ভূমিকা রাখছে। মাছ চাষে জেলে পরিবারের নারীরা মাছ ধরার পর মাছ বাছাই, কাটা, বাছা, শুকানো ও বাজারজাতকরণে সহযোগিতা করে।

দেশের মোট জনসংখ্যার শতকরা ৪৯ ভাগ নারী, যার শতকরা ৮৬ ভাগ বাস করে গ্রামে। মোট নারী শ্রমশক্তির ৭১.৫ শতাংশ নারী কৃষি কাজে নিয়োজিত আর্থ-সামাজিক অবস্থায় পুরুষের তুলনায় নারী দারিদ্র্যসীমার প্রায় ৪৩ শতাংশ নিচে বাস করে। ১৯৯৮ সালে কৃষিতে নারীর অবদানের স্বীকৃতিস্বরূপ জাতিসংঘের খাদ্য ও কৃষি সংস্থা বিশ্ব খাদ্য দিবসের প্রতিপাদ্য হিসেবে বেছে নিয়েছিল ‘অন্ন জোগায় নারী’ এ স্লোগানটি।

কৃষি কর্মকাণ্ডে গ্রামীণ নারীর স্বতঃস্ফূর্ত অংশগ্রহণই নারীর প্রধান সম্ভাবনা। সরকারি-বেসরকারি ও প্রাইভেট সংস্থার সহায়তায় কৃষি উন্নয়নে নারী গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখতে পারবে।

-সালেহ্ সাবাহ (বাংলাদেশ প্রতিদিন)

লেখাটি ৬৬২ বার পড়া হয়েছে


উইমেন চ্যাপ্টারে প্রকাশিত সব লেখা লেখকের নিজস্ব মতামত। এই সংক্রান্ত কোনো ধরনের দায় উইমেন চ্যাপ্টার বহন করবে না। উইমেন চ্যাপ্টার এর কোনো লেখা কেউ বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করতে পারবেন না।

RFL
Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.