সংলাপের বিষয়ে পাল্টাপাল্টি বক্তব্য

sonlapউইমেন চ্যাপ্টার ডেস্ক: সরকারের পক্ষ থেকে একবার সংলাপের জন্য আমন্ত্রণ জানানোর পর বিরোধী দল সাড়া না দিলে এখন পরবর্তী উদ্যোগ নিয়ে চলছে বাকযুদ্ধ। সরকার দলের পক্ষ থেকে পরবর্তী উদ্যোগ বিরোধী দলকেই নিতে হবে বলে মন্তব্য করা হলেও মানছেনা বিরোধী দল। তারা মনে করে সরকারকেই সংলাপের পরিবেশ সৃষ্টি করে সংলাপের জন্য ডাক দিতে হবে।

আজ এক সংবাদ সম্মেলনে আওয়ামী লীগ নেতা মোহাম্মদ নাসিম বলেন, “১৪ দলের বক্তব্য হচ্ছে, ২৯ তারিখের পরে সংলাপে বসতে চাইলে উদ্যোগ বিরোধী দলকেই নিতে হবে। প্রধানমন্ত্রীকে ফোন করে সংলাপের বিষয় ঠিক করতে হবে।”

বিরোধী দলের তরফ থেকে ২৯ তারিখের পর সংলাপের আমন্ত্রণ জানাতে বলা হলে সরকার দলের তরফ থেকে এমন বিবৃতি দেয়া হয়।

এদিকে, সরকার দলের এই বক্তব্য প্রত্যাখ্যান করেছে বিএনপি। আজ নয়া পল্টনে দলীয় কার্যালয়ের এক সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

তিনি বলেন, সরকারকে ২৯ তারিখের পর উদ্যোগ নিয়ে প্রমাণ করতে হবে আলোচনায় তাদের সদিচ্ছা রয়েছে।

“আমরা কেন টেলিফোন করব? সংলাপের উদ্যোগ সরকারকেই নিতে হবে। অন্যথায় বুঝতে হবে, এই বিষয়ে তাদের সদিচ্ছা ও আন্তরিকতা নেই।”

বিএনপি টেলিফোন করবে কি না এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, “টেলিফোন করলেই তো সঙ্কটের সমাধান হবে না। এর জন্য আগে কার্যকর উদ্যোগ ও সংলাপের পরিবেশ তৈরি করতে হবে।”

এ সময় তিনি বিএনপির দলীয় অবস্থান ব্যাখ্যা করে বলেন, “আমাদের দাবি নির্বাচনকালীন সময়ে নির্দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচন। এই দাবিতে আলোচনার কথা আমরা বলে আসছি। আমরা নির্দলীয় সরকারের বিষয়ে আলোচনা কিংবা সংলাপ চাই। এতে সরকার রাজি থাকলে আমরা সংলাপের জন্য প্রস্তুত হয়ে আছি।”

শেয়ার করুন:
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.