বিএনপি অফিসে পুলিশের অবস্থান

BNP officeউইমেন চ্যাপ্টার: বিএনপি অভিযোগ করেছে, আগামী ২৫ অক্টোবর ডাকা সমাবেশের আগে পুলিশ রাজধানী ঢাকায় দলটির কেন্দ্রীয় অফিস ঘিরে রেখেছে।

পুলিশের বরাত দিয়ে বিবিসি বাংলা এক খবরে বলছে, দলের একজন নেতার বক্তব্যকে ঘিরে মানুষের মনে যাতে আতঙ্কের সৃষ্টি না হয় সেজন্যে সেখানে নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে। ঈদের পরদিন বৃহস্পতিবার সকাল থেকে হঠাৎ করেই বিএনপির অফিসের সামনে পুলিশের উপস্থিতি বাড়ানো হয়।

দলটি আগামী ২৫শে অক্টোবর ঢাকায় সরকারবিরোধী সমাবেশের কর্মসূচি ঘোষণা করলেও পুলিশ এখনও এই সমাবেশের অনুমতি দেয়নি।

সংবিধান অনুসারে, আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন মহাজোট সরকারের অধীনে ২৫শে অক্টোবর থেকে ২৪শে জানুয়ারির মধ্যে সাধারণ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা। কিন্তু দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচন নিরপেক্ষ হবে না দাবি করে বিএনপি তত্ত্বাবধায়ক সরকারের জন্যে দীর্ঘদিন ধরে আন্দোলন করছে। তারা বলছে, নির্দলীয় সরকারের দাবি মানা না হলে তারা নির্বাচনে যাবে না।

এদিকে ঈদের পরদিন হঠাৎ করেই প্রচুর পুলিশ অবস্থান নেয় বিএনপির কেন্দ্রীয় অফিসের সামনে। বিএনপি বলছে, তাদের সমাবেশে বাধা দেওয়ার জন্যে পুলিশ এই পরিস্থিতির সৃষ্টি করেছে।

বিএনপি নেতা রিজভী আহমেদ অভিযোগ করেছেন, তাদের কোনো নেতাকর্মীকে অফিসের ভেতরে ঢুকতে বা বের হতে দেওয়া হচ্ছে না।

তিনি বলেন, জনমনে আতঙ্ক সৃষ্টির জন্যেই পুলিশ ঈদের ছুটির মধ্যে তাদের অফিসের সামনে ব্যাপক সংখ্যক পুলিশ মোতায়েন করেছে।

এই অভিযোগ অস্বীকার করে পুলিশ বলছে, বিএনপির ভাইস চেয়ারপার্সন সাদেক হোসেন খোকা দা কুড়াল নিয়ে নেতাকর্মীদের প্রস্তুত থাকার নির্দেশ দেওয়ার পর তারা আশঙ্কা করছে, অফিসের ভেতরে এ ধরনের অস্ত্র জড়ো করা হতে পারে। অফিসের সামনে রাস্তায় একটি প্রিজন ভ্যানও রাখা হয়েছে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে পুলিশের একজন কর্মকর্তা আশরাফুজ্জামান বিবিসি বাংলাকে বলেছেন, সন্দেহজনক কাউকে ভেতরে ঢুকতে দেখলে তাকে গ্রেফতারের নির্দেশ রয়েছে।

অফিসের আশেপাশে ফুটপাত থেকে ভ্রাম্যমাণ দোকানপাট উঠিয়ে দিয়েছে পুলিশ।

শেয়ার করুন:
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.