সব বাহিনীতে দুর্যোগ মোকাবিলায় ইউনিট চাই

pmউইমেন চ্যাপ্টার: দেশের যেকোনো দুর্যোগ মোকাবিলায় সেনা, নৌ, বিমান ও পুলিশসহ প্রত্যেক বাহিনীতে আলাদা ইউনিট রাখা এবং উপযুক্ত প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা রাখার ওপর গুরুত্ব আরোপ করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। রোববার আন্তর্জাতিক দুর্যোগ প্রশমন দিবসের আলোচনা সভায় তিনি একথার পাশাপাশি বৃক্ষরোপণ করে পরিবেশ রক্ষা এবং ইমারত বিধি মেনে দালান নির্মাণের জন্যও সবার প্রতি আহবান জানান।

জাতিসংঘের পক্ষ থেকে এবছর দিবসটির প্রতিপাদ্য নির্ধারণ করা হয়েছে ‘প্রতিবন্ধীদের সাথে রাখব, দুর্যোগ সহনশীল দেশ গড়ব’। বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে আয়োজিত এই আলোচনা সভায় ঘূর্ণিঝড় ও বন্যাপরবর্তী ব্যবস্থাপনায় আন্তর্জাতিক পর্যায়ে বাংলাদেশের প্রশংসা অর্জনের বিষয়টি উল্লেখ করে শেখ হাসিনা বলেন, আমরা আমাদের দক্ষতার স্বাক্ষর রাখতে সক্ষম হয়েছি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, জলবায়ু পরিবর্তনের বিরূপ প্রভাবের কারণে দুর্যোগের সংখ্যা এবং এর ভয়াবহতা ক্রমেই বেড়ে চলেছে। ইমারত বিধি মেনে চলার ওপর গুরুত্ব দিয়ে তিনি বলেন, অনেকেই বিল্ডিং কোড মানেন না। মানুষের জীবন অনেক বড়। বাড়ি তৈরি করে অর্থ কামাই করার সাথে সাথে সেদিকেও নজর দেওয়ার আহবান জানাচ্ছি।

দুর্যোগ মোকাবেলায় উপকূলীয় এলাকায় বৃক্ষরোপণ করে সবুজ বেষ্টনী গড়ে তোলারও আহ্বান জানান শেখ হাসিনা। দুর্যোগ প্রশমন সক্ষমতা বাড়াতে ‘দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা আইন-২০১২’ এবং ‘ঘূর্ণিঝড় আশ্রয় কেন্দ্র নির্মাণ, রক্ষণাবেক্ষণ ও ব্যবস্থাপনা নীতিমালা-২০১১’ প্রণয়ন করেছে সরকার। সেইসাথে দুর্যোগে ঝুঁকি ব্যবস্থাপনায় সার্ক দেশগুলোর মধ্যে তথ্য আদান-প্রদান ও সহযোগিতার জন্য একটি চুক্তিও স্বাক্ষর করা হয়েছে।

এ অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে জাতীয় পর্যায়ে শিশু চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মধ্যে পুরস্কার বিতরণ করেন প্রধানমন্ত্রী।

অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের সচিব মেসবাহ উল আলম।

দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণমন্ত্রী আবুল হাসান মোস্তফা শহীদের সভাপতিত্বে অন্যদের মধ্যে সমাজকল্যাণ মন্ত্রী এনামুল হক মোস্তফা শহীদ ও জাতিসংঘের আবাসিক প্রতিনিধি নিল ওয়াকার অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন।

রামকৃষ্ণ মিশনে প্রধানমন্ত্রী

রোববার বিকেলে ঢাকার রামকৃষ্ণ মিশনে পুজা পরিদর্শনে যান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এসময় তিনি বলেন, ধর্মীয় সম্প্রীতি বজায় রাখা বাঙালীর ঐতিহ্য। ভবিষ্যতেও এর ধারাবাহিকতা রক্ষা করতে তিনি সবার প্রতি আহ্বান জানান। তিনি বলেন, এই সরকার ধর্মের স্বাধীনতা নিশ্চিত করেছে। ধর্ম যার যার রাষ্ট্র সবার। সবাইকে ঐক্যবদ্ধভাবে দেশের কাজে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান তিনি।

শেয়ার করুন:
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.