গাইবান্ধা ধর্ষণ মামলা, ওসিকে বদলি

rapeউইমেন চ্যাপ্টার: পুলিশের হেফাজতে থাকা অবস্থায় এক কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ থানার ওসিকে বদলি করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার পুলিশ সুপার মো. সাজিদ হোসেন ওসি শেখ মো. দেলোয়ার হোসেনকে বদলির আদেশের বিষয়টি স্বীকার করেন।

ওই থানায় গত ২৮ সেপ্টেম্বর থেকে ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত এক কিশোরীকে আটকে রেখে পাঁচ পুলিশ সদস্য ধর্ষণ করে বলে অভিযোগ উঠেছে।

এর প্রতিবাদে গত কয়েকদিন ধরে গাইবান্ধাসহ দেশের বিভিন্ন জায়গায় বিভিন্ন সামাজিক সংগঠন মানববন্ধন, বিক্ষোভ ও প্রতিবাদ সমাবেশ করে আসছে।

পুলিশ জানায়, ১০ অক্টোবর উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশে ওই ওসিকে বদলির আদেশ দেয়া হয়।

গত ২৮ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যায় ঢাকা-রংপুর মহাসড়কের গোবিন্দগঞ্জ উপজেলা শহরের অদূরে মাস্তা এলাকায় ওই কিশোরীকে কান্নাকাটি করতে দেখে স্থানীয় লোকজন থানায় খবর দেয়। ওই রাতেই পুলিশ কিশোরীটিকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়। ৩০ সেপ্টেম্বর গোবিন্দগঞ্জ জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিমের আদালতের নির্দেশের মাধ্যমে নিরাপত্তা হেফাজতে পাঠায়।

সেখানে অসুস্থ হয়ে পড়লে কারাগারের কর্তৃপক্ষের কাছে কিশোরীটি তাকে ধর্ষণের ঘটনার কথা জানায়। এ নিয়ে ক্ষোভে ফেটে পড়ে সারাদেশ।

এদিকে কিশোরী ধর্ষণের ঘটনায় অভিযুক্ত পুলিশ সদস্যদের গ্রেপ্তার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবিতে বিকেলে চট্টগ্রাম নগরের নিউমার্কেট এলাকায় সমাবেশ করেছে বাংলাদেশ নারী মুক্তি কেন্দ্র চট্টগ্রাম জেলা শাখা।

সংগঠনের সভাপতি পপি চাকমার সভাপতিত্বে সমাবেশে বক্তব্য দেন কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি সীমা দত্ত, সাংগঠনিক সম্পাদক মনিদীপা ভট্টাচার্য, সহসম্পাদক আসমা আক্তার, সদস্য পূরবী চক্রবর্তী প্রমুখ।

বক্তারা অবিলম্বে দোষী পুলিশ সদস্যদের গ্রেপ্তার ও ফাঁসির দাবি জানান।

শেয়ার করুন:
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.