“পোশাক শিল্পে মালিক ও শ্রমিক একে অপরের পরিপূরক”

0

PMউইমেন চ্যাপ্টার ডেস্ক: কারখানা, মালিক ও শ্রমিক একে অপরের পরিপূরক। কারখানা টিকে থাকলে কাজ থাকবে কাজ থাকলে শ্রমিকরা ভালোভাবে বাঁচতে পারবে। দেশের আয় হবে। তাই পোশাক কারখানাকে কারও প্ররোচনায় ধ্বংসের পথে ঠেলে না দিতে আহ্বান করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বৃহস্পতিবার গার্মেন্ট মালিকদের সংগঠন বিজিএমইএ আয়োজিত ২৪তম বাটেক্সপোর উদ্বোধন করে তিনি এসব কথা বলেন।

মালিকদের উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, “আপনারা বিলাসিতা কম করলে; স্যুট টাই দু’একটা কম পড়লে কিন্তু ক্ষতি নাই। তাতে শ্রমিকরা পেট ভরে খেতে পারলে দ্বিগুণ উৎসাহে আপনাদের কাজ করে দেবে।”

শ্রমিকদের অর্থ উপার্জনের একমাত্র অবলম্বন এই পোশাক কারখানা ধ্বংস হওয়া মানে তাদেরই ক্ষতি উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, “এই কারখানা থাকলে কাজ থাকবে। কাজ থাকলে আপনারা ভালোভাবে থাকতে পারবেন। তাহলে, আমাদের দেশের রপ্তানিও বৃদ্ধি পাবে। কারখানা না থাকলে নিজেরাও কাজ হারাবেন।”

মালিকদের শ্রমিকদের প্রতি সহানুভূতিশীল থাকার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, শ্রমিকদের দায়িত্ব যেমন নিজ কর্মস্থল সুরক্ষা করা, তেমনই মালিকদের উচিত শ্রমিকদের ভালোমন্দ দেখা। কি খাচ্ছে তারা তাদের সন্তানের ভবিষ্যত ও বিবেচনা করারও অনুরোধ করেন প্রধানমন্ত্রী।

রানা প্লাজা ধস ও তাজরীনের অগ্নিকাণ্ডে নিহত শ্রমিকদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করে দেয়া বক্তব্যে প্রধানমন্ত্রী পোশাক শিল্পের উন্নয়নে সরকারের নেয়া বিভিন্ন পদক্ষেপের কথা তুলে ধরেন।

অনুষ্ঠানে মার্কিন রাষ্ট্রদূত ড্যান মজিনা সহ পোশাক শিল্প মালিক ও বিদেশি ক্রেতারা উপস্থিত ছিলেন।

প্রধানমন্ত্রী ছাড়াও অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন, স্থানীয় সরকার মন্ত্রী সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম, পাট ও বস্ত্র মন্ত্রী আব্দুল লতিফ সিদ্দিকী, বাণিজ্য মন্ত্রী গোলাম মোহাম্মদ কাদের, নৌ-পরিবহণ মন্ত্রী শাজাহান খান, বেসামরিক বিমান চলাচল ও পর্যটন মন্ত্রী ফারুক খান, বিজিএমইএয়ের সভাপতি আতিকুল ইসলাম প্রমুখ।

লেখাটি ভাল লাগলে শেয়ার করুন:
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

লেখাটি ১ বার পড়া হয়েছে


উইমেন চ্যাপ্টারে প্রকাশিত সব লেখা লেখকের নিজস্ব মতামত। এই সংক্রান্ত কোনো ধরনের দায় উইমেন চ্যাপ্টার বহন করবে না। উইমেন চ্যাপ্টার এর কোনো লেখা কেউ বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করতে পারবেন না।

Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.