আগামীকাল আব্দুল আলিমের রায়

abdul alimউইমেন চ্যাপ্টার ডেস্ক: মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলায় বিএনপির সাবেক মন্ত্রী আব্দুল আলিমের রায় ঘোষণা করা হবে আগামীকাল বুধবার।

তার বিরুদ্ধে একাত্তরে মহান মুক্তিযুদ্ধের সময়ে পাকিস্তানি বাহিনীর সাথে মিলে বাঙ্গালিদের হত্যা, লুটপাট, অগ্নিসংযোগ, দেশত্যাগে বাধ্য করা এবং এসব অপরাধে ইন্দন দেয়াসহ ৭ ধরণের অপরাধের ১৭টি অভিযোগ আনা হয়।

এর মধ্যে ১৫ টি হত্যার অভিযোগ রয়েছে। যেগুলোতে আব্দুল আলিমের বিরুদ্ধে মোট ৫৮৫ জনকে হত্যার অভিযোগ রয়েছে। যার মধ্যে তিনটি গণহত্যায় মোট ৪০৬ জনকে হত্যা করা হয় বলেও উল্লেখ করা হয়েছে।

প্রসিকিউটর রানা দাস গুপ্ত জানান, তার বিরুদ্ধে আনা দুটি অভিযোগে কোন সাক্ষ্য প্রসিকিউশন উপস্থাপন করেনি। বাকী সবকটি অভিযোগ সন্দেহাতীতভাবে প্রমাণ করতে পেরেছেন বলেও মনে করেন তিনি। প্রসিকিউশন এই মানবতাবিরোধী অপরাধীর সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদণ্ডের দাবি জানান।

আরেকজন প্রসিকিউটর তুরিন আফরোজ বলেন, তিনি একজন আইনজীবী হয়ে এমন সব মানবতাবিরোধী অপরাধে সহায়তা করার জন্য তাকে তাকে ‘সুপিরিয়র রেসপনসিবল’ হিসাবে ধরা যায়।

যদিও আব্দুল আলিমের আইনজীবী অ্যাডভোকেট তাজুল ইসলাম বলেন, “আব্দুল আলীমের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রপক্ষের অভিযোগ ভিত্তিহীন বাগাড়ম্বর।প্রসিকিউশন গৎবাধা কিছু সাক্ষ্যপ্রমাণ দিয়ে তাকে মানবতাবিরোধী অপরাধী সাজাতে চায়।”

তিনি আরও বলেন, “রাষ্ট্রপক্ষের কোনো সাক্ষ্যপ্রমাণে আলীম সাহেবের একদিনের শাস্তিও গ্রহণযোগ্য নয়। তবে আমরা আদালতের আদেশের প্রতি শ্রদ্ধাশীল।”

উভয়পক্ষের যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শেষে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল-২ গত ২২ সেপ্টেম্বর মামলাটি রায়ের জন্য অপেক্ষমান রাখে।

আগামীকালের এই রায়টি হবে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের অষ্টম রায়।

২০১১ সালের ২৭ মার্চ জয়পুরহাটের বাড়ি থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। চারদিন পরে তাকে এক লাখ টাকা মুচলেকায় ছেলে ফয়সাল আলীম ও আইনজীবী তাজুল ইসলামের জিম্মায় শর্ত সাপেক্ষে জামিন দেয়া হয়।

২০১২ সালের ৯ জুলাই এ মামলায় সাক্ষ্যগ্রহণ শুরু হয়। প্রসিকিউশন মোট ৩৫ জন সাক্ষ্য ট্রাব্যুনালে উপস্থাপন করেন। আসামীপক্ষে তার ছেলে সাজ্জাদ ছাড়াও সাক্ষ্য দেন জয়পুরহাটের বাসিন্দা মো. মামুনুর রশিদ চৌধুরী ও মো. মোজাফফর হোসেন।

১৯৭৯, ১৯৯৬ ও ২০০১ সালে তিনি বিএনপির টিকিটে তিনবার সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। জিয়াউর রহমানের সরকারের আমনে তিনি প্রথমে বস্ত্রমন্ত্রী এবং পরে যোগাযোগমন্ত্রী ছিলেন।

শেয়ার করুন:
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.