তারকাদের ভালবাসা- তাহসান ও মিথিলা

mithila-(18)20120213190627বিরামহীন ছুটে চলা জীবনে এক ফোটা বৃষ্টি, এক টুকরো ঝলমলে রোদ, সাদা ছেঁড়া-ছেঁড়া মেঘ হল ভালোবাসা। ভালোবাসা শব্দটি যতবারই শোনা হয়, ততবারই নতুন মনে হয়। ভালবাসা হ”েছ এমন এক অনুভূতি যা মানুষের মনে মানুষের জন্য সৃষ্টি করে গভীর টান। ভালোবাসাকে উপেক্ষা করার সাধ্য নেই কারোই।

মিডিয়া জগতে দুটি প্রিয় মুখ তাহ্সান ও মিথিলা। একজন স্বপ্নীল সুরের মায়ায় আবিষ্ট করে রেখেছেন লাখো দর্শক-শ্রোতাকে বছরের পর বছর অন্যজন মায়াজরানো গানের পাশাপাশি মিষ্টি হাসি আর মুগ্ধতা ছড়ানো অভিনয় করছেন নিয়মিত। চলুন জেনে নেয়া যাক এই তারকা দম্পতির ভালবাসার গল্প-
জনপ্রিয় এ তারকা দম্পতির কাছে তাদের ভালোবাসার গল্প জানতে চাইলে মিথিলা বলেন, ২০০৪ সালে তাহ্সানের সঙ্গে আমার প্রথম দেখা হয়। বন্ধুর ছোট ভাইয়ের জন্য তাহসানের বাসায় অটোগ্রাফ নিতে গিয়ে তার সঙ্গে আমার পরিচয়।

পরিচয়ের একদিন পর ভার্সিটির কলা ভবনের সামনে হঠাৎ করেই দু`জনের দেখা হয়ে যায়। সেদিন সে আমাকে একটি চিঠি দিয়েছিল যেটা আমার কাছে এখনও আছে। চিঠিটি বাসায় এসে পড়লাম। চিঠি পড়ে উত্তর দেওয়ার কথা ছিল। চমৎকার ছিল চিঠিটি এরপর আমি ফোন করেছিলাম। ফোন করেই দুজনে হাসা শুর“ করলাম।এভাবেই আমাদের মধ্যে ফোনে কথা বলা শুর“ হলো। প্রথম অ্যালবাম `কথোপকথন`-এ আমি একটা গান করি। তখনও আমাদের মধ্যে বন্ধুত্ব ছিল। এরপর আস্তে আস্তে দু`জন দু`জনকে ভালোবাসতে শুর“ করলাম ভালবাসা যেন ফুরাতেই চায়না। দুজনের ভালোলাগা-ভালোবাসা ২০০৬ সালে বিয়ের মাধ্যমে পূর্ণতা পায়।
একে অপরকে ভালোবেসে ঘর বেঁধেছেন। দেখতে দেখতে কেটে গেছে বেশ কয়েকটি বছর। এখনও আগের মতোই অটুট রয়েছে ভালোবাসার বাঁধন, বিয়ের আগে আর বিয়ের পরে দুজনের মধ্যে কোনো তফাত এসেছে কিনা? এমন প্রশ্নের উত্তরে মিথিলা বেশ অভিযোগের সুরে জানালেন জানালেন, অনেক তফাত এসেছে। আগে সে প্রেম করার জন্য অনেক সময় দিত চুপি চুপি গল্প করতাম, ফোনে অনেক কথা বলতাম তারপরেও কথা শেষ হতো না।

আর এখন তেমন সময় হয়ে ওঠে না। প্রসঙ্গ টেনে নিয়ে তাহসান বলেন, আসলে এখন দুজনেই অনেক ব্যসÍ তারপরও সময় পেলেই একসাথে ঘুরতে যাই, ডিনারে যাই, একান্তই নিজেদের মতো করে সময় কাটাই। তখন আমার বাসা ছিল মিন্টো রোডে আর মিথিলার বাসা ছিল গুলশানে। তখন ডাকলে হাজার কাজ থাকলেও ছুটে যেতাম, এখনতো পাশেই থাকি। এটা ঠিক যে, বিয়ের আগে আর বিয়ের পরে দুজনের অনেক কিছুই হয়তো বদলে গেছে,তবে শুধু একটা জিনিসেরই পরিবর্তন হয়নি তা হ”েছ ভালোবাসা। ওর প্রতি আমার ভালোবাসা আগের মতোই। সবসময়ই নতুনমোহ। মিথিলাও তাহসানের কথায় একমত হয়ে বলেন, আমি আগে অনেক পাগলামি করতাম, জেদ করতাম এখন আর এসব করি না বলেই পাগলামি সহ্য করতে হয় না। আগের মতোই তাকে ভালোবাসি শুধুই ভালবাসি।
দুজনে একই ছাদের নিচে থাকলে অনেক সময়ই নিজের মতের সঙ্গে প্রিয় মানুষটির মতের মিল নাও হতে পারে।

কিš‘ মিথিলা রাগ করলে তাকে কীভাবে শান্ত করেন প্রশ্ন করলে তাহসান বলেন, মিথিলা রাগ করলে আমি প্রথমত কথা না বলে চুপচাপ থাকি, কয়েক ঘণ্টা পর সব ভুলে গিয়ে স্বাভাবিক ভাবে কথা বলি। তারপর একসময় সরি বলি। মিথিলার ক্ষেত্রে ব্যাপারটি ভিন্ন। মিথিলা বলেন,আমার ক্ষেত্রেও তাই হয়।তবে প্রথমে সে রাগ করলে আমি প্রথমেই গিয়ে সরি বলি। এটাও বলি যে, সরি বলার মতো কিছুই করিনি তবুও আমি সরি বললাম।তারপরই দুজনে হাসতে থাকেন। এমনই টক-ঝাল-মিষ্টি তাহসান,মিথিলার সংসার।
পাঠক এমনই হয় ভালবাসার সংসার। তাই ভালোবাসুন হƒদয় উজাড় করে,প্রিয় মানুষটিকে বন্দি করে রাখুন হƒদয়ের কারাগারে। প্রেম সৌন্দর্যের ভেতর থাকে। ভালোবাসা মানুষকে সৌন্দর্যের শান্তির আবহে ডুবিয়ে দেয়। ভালোবাসা সত্য, সুন্দর, চিরন্তন, ভালোবাসার ঢেউ ছড়িয়ে দিন আপনার পছন্দের মানুষটির মাঝে।

(বাংলানিউজ২৪ থেকে)

শেয়ার করুন:
  • 3
  •  
  •  
  •  
  •  
    3
    Shares
Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.