দ্বিতীয় স্ত্রীকে পুড়িয়ে হত্যার চেষ্টা

rapeউইমেন চ্যাপ্টার: ভোলার তজুমদ্দিনে এক ব্যক্তি তার দ্বিতীয় স্ত্রীকে পুড়িয়ে হত্যা করতে চেয়েছিল বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

মঙ্গলবার গভীর রাতে এ ঘটনা ঘটে। উপজেলার ভুলাইকান্দি গ্রামে এ ঘটনায় আহত শিমুকে (১৮) ভোলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

শিমু ও তার স্বামীর স্বজনরা জানান, দুবছর আগে তজুমদ্দিনের ভুলাইকান্দি গ্রামের তিন সন্তানের জনক সামছুদ্দিনের সঙ্গে মোবাইল ফোনে খুলনার রুপসার আবদুছ ছালামের মেয়ে শিমুর (১৮) পরিচয় হয়। এরপর তারা বিয়ে করেন।

দুই সপ্তাহ আগে শিমু তজুমদ্দিনে স্বামীর বাড়ি আসার পর জানতে পারেন তার আগের স্ত্রী ও তিন সন্তান রয়েছে।

হাসপাতালে চিকিৎসাধীন শিমু সাংবাদিকদের বলেন, মঙ্গলবার গভীর রাতে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে ঝগড়ার এক পর্যায়ে সামছুদ্দিন শিমুর গায়ে আগুন লাগিয়ে দেন।

তার চিৎকারে এলাকার লোকজন এসে রাত ২টার দিকে তাকে হাসপাতালে নিয়ে আসে।

ঘটনার পর থেকে শামসুদ্দিন পলাতক রয়েছেন বলে পরিবারের লোকজন জানান।

ভোলা সদর হাসপাতালের চিকিৎসক সামি আহমেদ সাংবাদিকদের জানান, শিমুর শরীরের ৮০ শতাংশ পুড়ে গেছে। এ রকম রোগীকে সাধারণত বাঁচানো যায় না। এদিকে রোগীকে ঢাকায় স্থানান্তরের কথা বললেও শিমুর ননদ জানান, তাদের কাছে সেই টাকা নেই।

শেয়ার করুন:
Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.