স্ত্রী হত্যার দায়ে ৩৭ বছর কারাদণ্ড

child-marriage WCউইমেন চ্যাপ্টার: স্ত্রী হত্যার দায়ে ৪৩ বছর বয়সী এক ব্যক্তিকে ৩৭ বছর কারাদণ্ডাদেশ দিয়েছে  ঢাকার একটি আদালত।  মঙ্গলবার বিকালে ঢাকার তৃতীয় অতিরিক্ত মহানগর দায়রা জজ  মো: আক্তারুজ্জামান এ রায় দেন।

৩৭ বছর কারাদণ্ডের মধ্যে যাবজ্জীবন (৩০বছর) ও হত্যার পর লাশ গুমের জন্য আরও সাত বছর কারাদণ্ড দেওয়া হয়।

আসামিকে কারাদণ্ডের অতিরিক্ত ২৫ হাজার টাকা জরিমানা ও জরিমানা অনাদায়ে আরও তিন বছর  সশ্রম সাজা ভোগের নির্দেশ দেন বিচারক।

দণ্ডিত আবুল কালামের বাড়ি মাদারীপুর জেলার শিবচর উপজেলার চরশেখ গ্রামে। তার বাবার নাম ইসমাইল খাঁ।

রায়ের বিবরণে জানা যায়, দাম্পত্য কলহের জের ধরে ২০০৫ সালের ১০ আগস্ট আবুল কালাম তার স্ত্রী পারভীনকে গলাটিপে হত্যা করেন। হত্যার পর লাশ বস্তাবন্দি করে রাজধানীর বাড্ডা থানার কোকা কোলা এলাকার শফিক মেম্বারের বাড়ির পাশের ডোবায় ডুবিয়ে রাখেন।

ওই বছরের ১৪ আগস্ট লাশ ভেসে উঠলে পুলিশ উদ্ধার করে এ মামলা দায়ের করে।

লাশ ভেসে ওঠার পর আবুল কালাম পুলিশের কাছে আত্মসমর্পণ করেন। ১৫ আগস্ট তিনি আদালতে হত্যার দায় স্বীকার করে জবানবন্দি দেন।

২৮ সেপ্টেম্বর আবুল কালামকে অভিযুক্ত করে পুলিশ আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করে।

এ মামলায় ১৫ জনের সাক্ষ্য প্রমাণ শেষে মঙ্গলবার এই রায় ঘোষণা করে আদালত।

শেয়ার করুন:
Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.