“এ যুগের দ্রৌপদী”

“এ যুগের দ্রৌপদী”

শীলা মোস্তাফা

সাপের লেজে পা দিয়েছ বটে
দুর্যোধনের লেজ ,
সাপে কাটবে, ছোবলে ছোবলে নীল করে দেবে
তোমার মোমের মত শরীর।

নীল রক্তাক্ত বিপর্যস্ত শরীর নিয়ে
তবু উঠে দাঁড়াও।
মাথা উঁচু করে হাঁটো
হোঁচট খেয়ে পরে গেলে
হামাগুড়ি দিয়ে চলো,
তবু নিঃশ্বাস নাও
তবু বেঁচে থাক।

তারপর আবার উঠে দাঁড়াও
মাথা উঁচু করে
বুক টানটান করে
হেঁটে যাও
সবুজ পাহারাদারদের পেছনে রেখে
নপুংসুক আদালতের মুখে
ঘৃণা ছুঁড়ে,
হেঁটে যাও এ যুগের দ্রৌপদী।

দেখুক পৃথিবী
একবিংশ শতাব্দীর বস্ত্রহরণ
দেখুক মোসাহেব দল
দুর্যোধনের ক্রোধ আর ক্ষমতার দৌরাত্ম্য কতদূর।
মাটি কামড়ে বেঁচে থাকো!

প্রশ্নবিদ্ধ করুক তোমার পোশাক,
তোমার দেহ, তোমার মন,
তোমার উচ্চারিত প্রতিটি শব্দ,
প্রশ্নবিদ্ধ করুক তোমার তোমার প্রতি লোমকূপ
তবু প্রাণভরে নিঃশ্বাস নাও।
আর
রাত গভীর হলে
চোখ বন্ধ করে
তোমার বসার ঘরের দেয়ালে টাগানো
কবিগুরুর সেই ছবির চিত্রে একাগ্র মনে
প্রার্থনা কর
“বিপদে আমি না যেন করি ভয়”।

ওদের ক্লেদাক্ত বিচারের প্রহসনে
তোমাকে ঘিরে থাকুক কলঙ্কিত সবুজ বাহিনী
তার মাঝখানে উন্নত শিরে
জেগে থাক পদ্ম!

ভুলে যেও না
ভুলে যেতে দিও না
আগুন থেকে যার সৃষ্টি
সে বজ্রাহত হয় না
ওরা দেখুক ওরা জানুক
মোমের মত শরীরের ভেতরে বাস করে
এক অগ্নিকন্যা,
তাকে জ্বালানো যায়, পোড়ানো যায়
ডোবানো যায় ভাসানো যায়
কিন্তু কোনভাবেই
অস্বীকার করা যায় না।

শেয়ার করুন:
  • 105
  •  
  •  
  •  
  •  
    105
    Shares
Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.