মুম্বাই ধর্ষণ মামলার দায়িত্বে প্রখ্যাত এক আইনজীবী

anti rapeউইমেন চ্যাপ্টার ডেস্ক: মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্র পৃথ্বীরাজ চৌহান বলেছেন, বিখ্যাত অপরাধ বিষয়ক আইনজীবী উজ্জ্বল নিকাস মুম্বাই গণধর্ষণ মামলার নেতৃত্ব দেবেন। ১৯৯৩ সালে মুম্বাইয়ে সিরিজ বোমা বিস্ফোরণ এবং ২৬/১১ হামলার মামলায় রাষ্ট্রপক্ষের কৌঁসুলি ছিলেন এই আইনজীবী।

এদিকে ভারতের মুম্বাই পুলিশ বলেছে, সাংবাদিক গণধর্ষণের জন্য অভিযুক্ত সবারই জন্ম এবং বড় হওয়া এই মুম্বাই শহরে। এদের কেউই কিশোর অপরাধী নয়।

মুম্বাই পুলিশের প্রধান সত্যপাল সিং এর মন্তব্যের বরাত দিয়ে টাইমস অব ইন্ডিয়া জানিয়েছে, ফটো সাংবাদিককে গণধর্ষণের ঘটনায় অভিযুক্ত পাঁচজনকেই গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এদের একজনকে কিশোর অপরাধী বলে দাবি করা হলেও এদের কেউই অপ্রাপ্তবয়স্ক নয়। আগামী ৫ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত তাদের রিমান্ডে নেওয়া হয়েছে।

ওই পুলিশ কর্মকর্তা আরও জানান, অভিযুক্তদের একজন ক্ষতিগ্রস্ত সাংবাদিকের ছবি তুলেছিল মোবাইল ফোনে, সেই ফোনটিও জব্দ করা হয়েছে। তবে ছবিটি এখন আর দেখা যাচ্ছে না।

পুলিশ কমিশনার বলেন, সেন্ট্রাল ফরেনসিক ল্যাবরেটরি এবং গুজরাট ফরেনসিক সায়েন্স ল্যাবরেটরির বিশেষজ্ঞরা অভিযোগ যাচাই করে দেখায় সহায়তা করবেন পুলিশকে। এর মধ্যে একটি গ্রুপ এরই মধ্যে মুম্বাই পৌঁছেছে, অপরটিও আসছে।

সিং বলেন, মামলার কাজ খুব দ্রুত এগোচ্ছে, একজন কৌঁসুলিও নিয়োগ দেওয়া হচ্ছে এবং যতো দ্রুত সম্ভব অভিযোগপত্র দেওয়া হবে।

তিনি আরও জানান, অভিযুক্ত চাঁদ বাহু সাত্তার শেখ, বিজয় যাদব এবং মোহাম্মদ কাসিমের নামে আগেই চুরি-ডাকাতিসহ বিভিন্ন অপরাধের অভিযোগ আছে। পরিত্যক্ত কাপড়ের কারখানা শক্তি মিল এর আগেও একই ধরনের অপরাধের পিছনে এরা জড়িত থাকার বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে বলে জানান ওই কর্মকর্তা। এছাড়াও তাদের বিরুদ্ধে আরও অনেক ধরনের অভিযোগ পাওয়া যাচ্ছে। তবে জিজ্ঞাসাবাদের সময় এগুলোর কোনটিই স্বীকার করেনি তারা।

ঘটনাটি পূর্বপরিকল্পিত বলেও বর্ণনা করেন পুলিশ কমিশনার।

শেয়ার করুন:
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.