একটি হারিয়ে ফেলা ‘ঠিকানা’

রোকশানা আক্তার:

‘মাসুদ ইকবাল’- এই নামেই তো জানতাম আপনাকে। বিচিত্রায় পত্রমিতালী পাতার বিজ্ঞাপনের মধ্য দিয়ে আমারা বন্ধু হয়েছিলাম, আমি আমার আসল ঠিকানা দিলেও নামটি দিয়েছিলাম নকল, কিন্তু আপনি তো ঠিকানাই দেননি, দিয়েছিলেন পোষ্ট বক্স এর নাম্বার, তখন অনেকে পোষ্ট বক্স ভাড়া করে ডকুমেন্ট নেওয়ার কাজে ব্যবহার করতো, আপনিও তাই করেছিলেন।
তবে আজ মনে হয় নিজেকে আড়াল করার জন্যই আপনি এটা করেছিলেন, এটাও মনে হয় নামটি কি আপনার আসল ছিল? নাকি সেটাও নকল? কী জানি! তবে আমরা কেউ কাউকে দেখার আগ্রহ প্রকাশ করিনি, ছবিও লেনদেন করিনি, তারপরও আমাদের বন্ধুত্বটা খুব গভীর হয়ে গিয়েছিল, বেশ ভালো লাগায় ভরে ছিল সে সময়টা, কিন্তু অনেক ভালোর মধ্যে একটা হতাশার সুর পেতাম আপনার চিঠিতে, আপনি প্রায় চিঠিতে লিখতেন, আপনি বিপদে আছেন, তবে এটাও লিখতেন, এই বিপদ কেটে যাবে, তখন সবকিছু আমাকে বলবেন, নিজের সম্পর্কেও জানাবেন।

নিজের সম্পর্কে কোন কথা না বললেও আপনার লেখার মধ্যে দিয়ে এটা বুঝেছিলাম, নিউমার্কেটের দিকে আপনার অফিস, আপনি ব্যবসার সাথে জড়িত, আর মাঝে মাঝে নিজের গাড়ি নিয়ে অফিসের কাজে ঢাকার আশেপাশে যেতে হতো আপনাকে। একটি চিঠিতে আমি শেষে লিখেছিলাম, “বসন্তের বাতাস এসে আপনাকে ভাসিয়ে নিয়ে যাক কঠিন জগত থেকে’।

তার বেশ কিছুদিন পরে চিঠির উত্তর দিলেন, লিখেছিলেন, “অফিসের কাজে সাভারে এসেছিলাম, ফেরার পথে গাড়ি থামিয়ে নেমে পাশে দাঁড়িয়ে থাকলাম, আর তখন অনু্ভব করলাম, আপনার পাঠানো বসন্তের হাওয়া এসে আমার চুলগুলিকে এলোমেলো করে দিচ্ছিল। আর ভাবছিলাম আপনার কথা, কেমন আপনি? সুন্দর কথা দিয়ে চিঠি লেখেন, দেখতেও নিশ্চয় সুন্দর!

অবাক হয়েছিলাম আপনার চিঠি পড়ে। কারণ এতোদিন যাবত আপনার কোন চিঠিতে আবেগের কোন ছোঁয়া পাইনি। মনে হয়েছিল নিশ্চয় আপনার মনটা ভালো নেই।

মাসুদ ইকবাল, সেটাই ছিল আপনার শেষ চিঠি। আমি অনেক অনেক দিন চিঠি পাঠিয়ে গেছি, কোন উত্তর আসেনি। বার বার বলতেন অনেক বিপদে আছেন। কী এমন বিপদ, যার কারণে আপনাকে হারিয়ে ফেললাম? সে বিপদের গহ্বর কতটা গভীর ছিল? পৃথিবীর কোথাও কোন এক কোণে আপনি আছেন তো? বিশ্বাস করেন, শুধু এইটুকু জানতে বড় ইচ্ছে করে। আচ্ছা এমন কি হতে পারে না এই মধ্য বয়সে আপনি আবার আমাকে খুঁজছেন? সেই প্রথমবার আমার ঠিকানা হারিয়ে ফেলার পর যেমন দ্বিতীয়বার আমার নাম দিয়ে বিজ্ঞাপন দিয়েছিলেন আমাকে খোঁজার জন্য, ঠিক তেমনভাবেই আবার আমাকে খুঁজছেন?

এমনও তো হতে পারে আমরা দুজনাই দুজনাকে খুঁজে চলেছি কালের মহাসমুদ্রে। আর অলৌকিকভাবে আমরা খুঁজে পেয়েও গেলাম আমাদের হারিয়ে যাওয়া বন্ধুকে। তেমনটা কি হতে পারে না? একবার যেটা ঘটে সেটা কি দ্বিতীয়বার ঘটতে পারে না? প্রকৃতি তো নির্দয় নয়। কারও হৃদয়ের আকুতি কি তাকে মোটেই স্পর্শ করে না? অলৌকিকভাবে তেমনটা কি হতে পারে না?

লেখিক: সমাজকর্মী

শেয়ার করুন:
  • 122
  •  
  •  
  •  
  •  
    122
    Shares
Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.