এ কোন সকাল, রাতের চেয়েও অন্ধকার?

সরিতা আহমেদ:

তিনদিন আগেই পার হয়েছে ৭২ তম বিশ্ব মানবাধিকার দিবস। প্রতিবার এই দিনটি আসে চোখ আঙুল দিয়ে বাস্তবকে চেনাতে।
উত্তর ভারতের গেরুয়া বলয়ে যে মানবাধিকার প্রতিদিন নানাভাবে লঙ্ঘিত হচ্ছে সেকথা আজ বস্তাপচা সত্য। ‘লাভ জেহাদ’ আর ‘ঘর ওয়াপসি’ ধর্মভিত্তিক তৈরি হওয়া এই নোংরা শব্দ বন্ধ যখন আইনি স্বীকৃতির পথ পায়, তখন তা যে কত ভয়ংকর হয়ে ওঠে, যোগী রাজ্যে তা প্রত্যহ টের পাচ্ছে মানুষ।

‘উত্তরপ্রদেশ বিধিবিরুদ্ধ ধর্ম সম্পরিবর্তন প্রতিষেধ অধ্যাদেশ ২০২০’ -এ বলা হয়েছে শুধুমাত্র একটি মেয়ের ধর্ম পরিবর্তনের উদ্দেশ্য নিয়ে দুই ধর্মের মধ্যে কোনও বিয়ে হলে দোষী ব্যক্তির দশ বছর পর্যন্ত কারাদণ্ড হতে পারবে। এই ধরনের ধর্মান্তরণের প্রমাণ পাওয়া গেলে সেই বিয়ে ‘শূন্য’ বা বাতিল বলে বিবেচিত হবে।
তবে বিয়ের ‘উদ্দেশ্য’ বোধক প্রমাণটি কীভাবে বের হবে তা বলা নেই।
এই বিলে কেবল হিন্দু (২০১১ সালের আদমসুমারী অনুযায়ী ৯৭ কোটি) ও মুসলিম (১৭ কোটি) জাতির কথাই মাথায় রাখা হয়েছে যেখানে ভারতে খ্রিষ্টান, বৌদ্ধ, শিখ,পার্সি, জৈন, ইহুদি, জরাথ্রুষ্টিয়ানসহ আরও ১৬ কোটির অন্য ধর্মাবলম্বীরাও আছেন সমান্তরাল সমাজে। অথচ সাম্প্রদায়িক বিদ্বেষের জনক বিজেপি ‘হিন্দুয়ানি বাঁচাও’ ঝাণ্ডা হাতে প্রচার করছে মুসলিম ছেলেরা কেবল জেহাদি প্রেমের দ্বারাই নাকি তাবৎ হিন্দুস্থানকে দখল করে ‘দারুল ইসলাম’ বানাতে চলেছে! কিন্তু কোনো মেয়েকে “জোর করে ধর্মান্তরিত করা হয়েছে” নাকি সে স্বেচ্ছায় স্বামীর ধর্ম গ্রহণ করেছে -তার ‘প্রমাণ’ কীভাবে পাওয়া যাবে সে বিষয়ে সবাই চুপ।

একদিকে এই আইনটি ভারতীয় সংবিধানের আর্টিকল ২১ (ব্যক্তি-স্বাধীনতার অধিকার),আর্টিকেল ২৫ (ধর্মীয় স্বাধীনতার অধিকার) এবং স্পেশাল ম্যারেজ অ্যাক্ট ১৯৫৪ (ভিন্ন ধর্মের নারী-পুরুষের বিয়ের স্বীকৃতি)- সবকিছুই লঙ্ঘিত করে। অন্যদিকে ‘ঘর ওয়াপসি’ মিশ্র সংস্কৃতির ভারতে নব্য হিটলারি যুগ নামিয়ে আনে।
বিজেপি ঘোষিত ‘লাভ জেহাদ’ যেখানে একজন মুসলিম প্রেমিককে ‘দেশদ্রোহী’ ঘোষিত করছে, জনৈক হিন্দু প্রেমিকাকে বিয়ের অপরাধে এমনকি তার প্রাণসংশয় অবধি হয়ে পড়ছে,
সেখানে একজন হিন্দু প্রেমিক ‘দেশপ্রেমিকে’র মর্যাদা পাচ্ছে জনৈক মুসলিম প্রেমিকাকে বিয়ে করে ‘ঘর ওয়াপসি’ ঘটানোর নামে।

এসব মেনে নিলে তুমি ‘গুড সিটিজেন’ নইলে ‘অনার কিলিং’ এর ডোজ তো আছেই।
যে উপমহাদেশের পিতৃতন্ত্র আজও খাপ পঞ্চায়েতের ফরমান দিয়ে ঘরের মেয়েদের অসূর্যস্পশ্যা রাখে, অসবর্ণে বিবাহে চোখ রাঙায়, দলিত যুবকদের উচ্চবর্ণীয় মেয়েরা বিয়ে করলে জ্যান্ত পুড়িয়ে দেয় বা চণ্ডীমণ্ডপে মেয়েটিকে সমবেতভাবে ধর্ষণ করে টাঙিয়ে দেয় -সেই সমাজ তো একটা মেয়ের জরায়ুর কর্তৃত্বকে এতো সহজে ভিনজাতের হাতে ছেড়ে দিতে পারে না। নারী শরীরের একচেটিয়া মালিকানাই এই ‘লাভ জেহাদ’ ও তজ্জনিত ‘অনার কিলিং’-এর নেপথ্যের কারণ। ভিনজাতে মেয়ের চলে যাওয়া মানে তো শুধু মেয়েরই যাওয়া নয়, তার গোটা শরীর ও জননাঙ্গও ভিন্ন সম্প্রদায়ের অধিকারভুক্ত হওয়া।

পিতৃতন্ত্রের পক্ষে এমন ধিঙ্গিপনা বরদাস্ত করাটা পরাজয়েরই নামান্তর।
সেইজন্যই যোগী আদিত্যনাথ আগে হুঙ্কার ছাড়তেন— “ওরা যদি আমাদের একটা মেয়েকে বিয়ে করে,আমরা তবে ওদের একশোটা মেয়েকে বিয়ে করবো।”
এখন বলছেন “যারা হিন্দু মেয়েদের সম্মান নিয়ে খেলছে, তাদের রাম-নাম সত্য হ্যায়ের যাত্রা শুরু হয়ে যাবে।’
আর এই রাম-নাম-সত্য হ্যায় স্রেফ হুমকি নয়। ঘোর বাস্তব।
যার জেরে –
১। লখনৌতে একটি ভিন ধর্মের বিবাহঅনুষ্ঠান বন্ধ করা হয়েছে।
২। জেলাশাসক বিয়ের অনুমতি দিচ্ছেন না আরেকটি যুগলকে।
৩। লিভ-ইন সম্পর্কে থাকা মিরাটের যুগল প্রতিদিন হুমকির মুখে পড়ছেন। বিয়েও করতে পারছেন না।

গতকাল জন্মসূত্রে হিন্দু মেয়ে মুসকানের (২২ বছর) বিষ ইঞ্জেকশানের মাধ্যমে গর্ভপাত করে প্রমাণ দেওয়া হলো যে, এসব ধর্মের উস্কানিমূলক গালভরা শব্দবন্ধগুলো আসলে মেয়েদের জরায়ুর উপর পুরুষতান্ত্রিক সমাজের একচেটিয়া গা-জোয়ারি অধিকার প্রয়োগের আধার মাত্র।
ধর্ম এখানে নিমিত্ত মাত্র।
অনাগত বাচ্চার ‘রাম নাম সত্য হ্যায়’ করে দিয়ে যোগী কথা রেখেছেন।
মুসকানের শাশুড়ির বিলাপেরও সুযোগ নেই, তাঁর ছেলে অর্থাৎ মুসকানের স্বামী রাশিদ (২৭ বছর) যে কোনো জেলে পচছেন নাকি গুমখুন হয়ে গেছেন কেই বা জানে!
ভালবেসেই ২৭ বছরের রাশিদকে বিয়ে করেছিলেন ২২ বছরের মুসকান। অথচ সারনেম বদলে যেতেই ‘লাভ জেহাদের’ জিগির তুলে খুন করা হলো গর্ভস্থ শিশুকে। জেলে ঢোকানো হলো রাশিদকে।

চমকের এখনও বাকি। বজরং দলের নেতা গৌরব ভাটনগর কোনো লুকাছাপাও করেনি এই প্রসঙ্গে।
এই যে ‘দ্যাখ কেমন লাগে’ নীতি, এই যে গা-জোয়ারি একরোখা গুণ্ডাবাদ – মানুষ মারার হোলি খেলায় উন্মত্ত এই উগ্র জনতাই কি তবে দেশের ভাবি নাগরিক? হিন্দু-মৌলবাদই কি তবে লিখবে ভারতের নয়া ইতিহাস?
আর আমরা চুপচাপ স্রেফ ভোটের কালি হাতে মাখবো!
সবরকমের মৌলবাদের বিরুদ্ধে একাট্টা হতে শিখবো না?

শেয়ার করুন:
  • 45
  •  
  •  
  •  
  •  
    45
    Shares
Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.