মুম্বাইতে সাংবাদিক ধর্ষণের ঘটনায় আটক পাঁচ

delhi_rapeউইমেন চ্যাপ্টার: ভারতের মুম্বাইতে স্থানীয় একটি সাময়িক পত্রিকার জন্য ছবি তুলতে গিয়ে তরুণ ফটো সাংবাদিকের গণধর্ষণের ঘটনায় পাঁচজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

নির্যাতিতা ও তার সহকর্মীর বর্ণনা অনুযায়ী সন্দেহভাজন পাঁচ ধর্ষকের সম্ভাব্য চেহারার স্কেচ প্রকাশ করার কয়েকঘণ্টা পরই তাদের গ্রেপ্তার করা সম্ভব হল।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা প্রায় ৬টার দিকে দক্ষিণ মুম্বাইয়ের নামা পারেল এলাকায় বন্ধ হয়ে যাওয়া একটি মিলের ছবি তুলতে গিয়ে পাঁচজন কর্তৃক গণঘর্ষণের শিকার হন তিনি।

তিনি এখন মুম্বাইয়ের যাসলক হাসপাতালে কিছুটা স্থিতিশীল অবস্থায় আছেন বলে জানিয়েছেন সেখানকার কর্তব্যরত চিকিৎসকরা।

এনডিটিভির এক খবরে বলা হয়, ভারতের একটি সাময়িকীতে কর্মরত এই সংবাদকর্মী নামা পারেলের বন্ধ হয়ে যাওয়া শক্তি মিলে এক পুরুষ সহকর্মী সহ অ্যাসাইনমেন্টে গিয়েছিলেন। ওই সময় দুই ব্যক্তি তাকে হেনস্থা করার চেষ্টা করলে তার সহকর্মী প্রতিবাদ করে। কিন্তু ধর্ষকরা সেই পুরুষ সহকর্মীকে মেরে বেঁধে ওই নারী সংবাদকর্মীকে টেনে হিঁচড়ে একটি পরিত্যক্ত ভবনে নিয়ে গিয়ে আমানুষিক শারীরিক নির্যাতন করে।

তাৎক্ষনিকভাবে ভুক্তভোগীদের বিবৃতি অনুযায়ী পাঁচ সন্দেহভাজনের স্কেচ তৈরি করে ছড়িয়ে দেয় পুলিশ।

ধারণা করা হচ্ছে জড়িত পাঁচজনের চারজনই বয়স ২০ এর মতো।

ওই নারী সাংবাদিকের বর্ণনা মতে পাঁচজনের মধ্যে দুইজনের নাম রুপেশ ও সাজিদ।

শুক্রবার সকালে ওই পুরুষ সহকর্মীকে নিয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল ‘শক্তি মিল’ পরিদর্শনে যায়।

মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী আর আর পাতিল বৃহস্পতিবার রাতে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন সংবাদকর্মীকে দেখতে গিয়ে দায়ীদের দ্রুত গ্রেপ্তার করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন।

শেয়ার করুন:
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.