পালাতে গিয়ে ৩৮ জন ব্রাদারহুড কর্মী নিহত

egyptউইমেন চ্যাপ্টার ডেস্ক: কায়রোর বাইরে হস্তান্তরের সময় পালাতে গিয়ে ৩৮ জন আটক মুরসি সমর্থক ও ব্রাদারহুড কর্মী নিহত হয়েছে। (খবর: বিবিসি)

মিশরের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বরাত দিয়ে বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়, বন্দিরা একজন সামরিক কর্মকর্তাকে জিম্মি করে এবং পরে তাদের বহনকারী গাড়িটিতে বন্দুকধারীরা আক্রমণ চালালে হতাহতের ঘটনা ঘটে।

অপহৃত ঐ সেনা কর্মকর্তা এখন হাসপাতালে আছেন।

ইউরোপীয় ইউনিয়ন মিশরে চলমান হত্যাকাণ্ড ও সংঘাতময় পরিস্থিতির কথা উল্লেখ করে মিশরের সাথে সম্পর্ক পূনর্মূল্যায়ানের বিষয়ে ভাবছে বলে বলেছে।
ইউরোপীয় কমিশনের মুখপাত্র পিটার ষ্ট্যানোর বরাত দিয়ে প্রতিবেদনে বলা হয়, মিশরে এই মূহুর্তে যা ঘটছে তাতে তারা গভীরভাবে উদ্বিগ্ন।

রোববার ইউরোপিয়ান কমিশন এবং ইউরোপিয়ান কাউন্সিলের এক যৌথ বিবৃতিতে বলেছেন দেশটিতে গত কয়েকদিন ধরে চলমান হত্যাকাণ্ড এবং সংঘাতকে কোনভাবেই মেনে নেয়া যায় না।

এদিকে মিশরের সেনা-সমর্থিত সরকারের ওপর চাপ সৃষ্টি না করার ব্যপারে পশ্চিমা দেশগুলোকে হুশিয়ার করে দিয়েছে সৌদি আরব।

রোববার মিশরের সেনাপ্রধান ফাতাহ আল সিসি মুসলিম ব্রাদারহুডের সমর্থকদের উদ্দেশ্যে কড়া হুঁশিয়ারী উচ্চারণ করেছেন।

তিনি বলেন, ‘যারা মনে করছে সহিংসতা ছড়িয়ে কাজ হবে, তাদের নতুন করে ভাবতে হবে।’

তবে তিনি সকলের সহাবস্থানের উপরেও জোর দেন। তিনি বলেন, ক্ষমতা দখলের কোন পরিকল্পনা সেনাবাহিনীর নেই, মিশরে সব মিশরীয়দেরই জায়গা রয়েছে।

যদিও রোববার থেকে দেশটির বিভিন্ন যায়গায় বাড়িতে বাড়িতে হানা দিয়ে মুসলিম ব্রাদারহুডের নেতা-কর্মীদের আটক করা হচ্ছে।

এপর্যন্ত হাজারেরও বেশি ব্রাদারহুড সমর্থককে আটক করা হয়েছে।

অস্থায়ী সরকারের মন্ত্রীসভায় এক জরুরী বৈঠকে মুসলিম ব্রাদারহুডকে আইনগত-ভাবে নিষিদ্ধ করার একটি প্রস্তাব নিয়েও আলোচনা হচ্ছে বলে জানা গেছে।

শেয়ার করুন:
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.