সুস্থ হচ্ছে অসুস্থ পৃথিবীটা!

 

মুমতাহিনা খুশবু:

সুস্থ হচ্ছে অসুস্থ পৃথিবীটা!
হতাশা নয়, আশার আলো খুঁজি, সুস্থ হই আমরাও।

স্রষ্টা যা করেন, মঙ্গল এর জন্য করেন।
অনেকেই যখন হতাশ হয়ে ভাবছেন পৃথিবী বোধহয় ধ্বংসের দোরগোড়ায় আমি তখন আশাবাদী, আমি বিশ্বাস করি স্রষ্টা হয়তো চাইছেন পৃথিবীটা আর কিছুদিন বাঁচুক।
একটা সুক্ষ্ম অকোষীয় অণুজীব দিয়ে তিনি যখন আমাদের মনে করিয়ে দিচ্ছেন যে আমরা মৃত্যুর মতো সত্যকে ভুলে কতোটা বিপথে আছি, একই সাথে আমাদের প্রাকৃতিক পরিবেশটাকে তিনি দূষণমুক্ত করে দিচ্ছেন।

পৃথিবীর মানুষগুলো আজ অবরুদ্ধ, তাই কোথাও কোন কালো ধোঁয়া নেই।
এই গৃহবন্দি সময়ে কমছে বায়ুদূষণের মাত্রা।
শিল্পোন্নত দেশগুলোতে অবিশ্বাস্য গতিতে কমছে নাট্রোজেন ডাই অক্সাইড, সালফার ডাই অক্সাইড আর কার্বন মনোক্সাইডের মাত্রা।
পৃথিবীর সানস্ক্রিন, ওজোন স্তর, সুস্থ করে নিচ্ছে নিজেকে। বৈশ্বিক উষ্ণতা কমছে!

ছবিতে নয়, বইয়ের পাতায় নয় এখন বাস্তবেই দেখছি ঝকঝকে নির্মল আকাশ! শুনছি পাখির কলতান!
পাতাঝরার শব্দ!
নতুন পাতার আহ্বান এ হয়তো এখন থেকে বৃষ্টি ঝড়বে বর্ষা আসবে ঠিক সময়ে!
কক্সবাজার সৈকতে নাকি বহুবছর পর ডলফিনের ঝাঁক দেখা গিয়েছে! ওড়িশার সমুদ্র তীরে নাকি লাখ লাখ ডিম পাড়ছে কচ্ছপের দল!
বন সংলগ্ন শহরগুলিতে দেখা যাচ্ছে বন্য প্রাণীদের আনাগোনা!

পৃথিবী আবার শীতল হচ্ছে!
আবার সুশৃঙ্খল হচ্ছে, সুন্দর বাসযোগ্য হচ্ছে!

মাত্র এক ভাইরাস দ্বারা স্রষ্টা বদলে দিচ্ছেন পৃথিবী পাল্টে দিচ্ছেন আমাদের মানসিকতা, আমাদের অভ্যাস, আমাদের জীবনযাত্রা।
স্রষ্টা, স্বার্থপর এই পৃথিবীকে স্বার্থহীন হতে শেখাচ্ছেন, সহমর্মিতা শেখাচ্ছেন!
ক্ষুদ্র স্বার্থ বাদ দিয়ে বৃহৎ স্বার্থে এখন পুরো দুনিয়া এক হয়ে গেছে।
এক মহামারী আমাদের অপূরণীয় ক্ষতি করলেও দিয়ে যাচ্ছে অনেক কিছু, শুধু আমাদের তা উপলব্ধি করার মতো জ্ঞান থাকতে হবে।
পৃথিবীর বুকে যুগে যুগে মহামারী এসেছে, চলেও গিয়েছে। আজকের এই মহামারীটিও চলে যাবে হয়তো দীর্ঘ সময় পর অনেক প্রাণের ক্ষয়ে কিন্তু তারপর যে মানুষগুলো থাকবে
আমি আশাবাদী তারা পাবে নতুন এক সাজানো পৃথিবী!
তাদের অনেক দায়িত্ব থাকবে। এই মহামারী থেকে শিক্ষা নিয়ে পৃথিবী এবং নিজের জীবনটা নতুন করে গড়া, নতুনের শুরুর দায়িত্ব!

স্রষ্টার প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে শুরু হবে সোনালি সকাল!
নতুন পৃথিবীতে নতুন গল্প শুরু হবে!

কোন সময়ই স্থায়ী নয়, সময়ের চাকা ঘুরবে…. চলতে থাকবে পৃথিবীর গল্পগুলো…. একদিন আজকের মহামারী গল্প হয়ে যাবে!

আমি আশাবাদী!
আমি ভাবতে চাইনা মরে যাবো
ভাবতে চাইনা পৃথিবী ধ্বংস হবে!
আমি আশাবাদী!
আমি প্রজন্মান্তরে শোনাতে চাই আজকের পৃথিবীর গল্প!”

শেয়ার করুন:
Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.