‘প্রিয়াঙ্কা রেড্ডিদের কেউ ধর্ষণ করে নাই!!!’

মোহর ভট্টাচার্য:

১ প্রিয়াঙ্কা রেড্ডির এনজিও গোপনে রিপোর্ট করেছিল তাই রুলিং পলিটিক্যাল পার্টিই তাকে রেপ করিয়ে পুড়িয়ে দিয়েছিল। তারপর তাদের গুণ্ডারা মুখ খুলতে পারে ভেবে তাদের এনকাউন্টার করানো হয়েছে।

২ প্রিয়াঙ্কার কোনো পলিটিকাল নেতা/ফিল্ম অ্যাক্টরের সঙ্গে অ্যাফেয়ার ছিল। সেই রেপ করিয়ে খুন করে দিয়েছে।

৩ প্রিয়াঙ্কার মৃতদেহ যেখানে পাওয়া গেছে, তার আশেপাশেই আরও একটি অজ্ঞাতপরিচয় মেয়ের লাশ পাওয়া যায়, একইভাবে পোড়ানো।
তারও এনজিও ছিল বোধ হয়৷

৪ প্রিয়াঙ্কা কেসে কোনো তথ্যপ্রমাণ নেই। সিসিটিভি ফুটেজ ফেক, পেট্রোল পাম্পের যে কর্মী শনাক্ত করেছিল তার বয়ান ফেক, প্রিয়াঙ্কার বোনের সঙ্গে কথা বলা ফেক। টায়ার পাংচার হওয়া স্কুটি ফেক। জবানবন্দী দেওয়া মেকানিক ফেক।

সত্য হলো অভিযুক্তের স্ত্রীর কান্না, তার স্বামী অমন করতেই পারে না।

(উমার কথা মনে আছে? সেই যার যোনিতে সূচ বেঁধাতো তার মা এবং মায়ের প্রেমিক? তার মাও প্রথমে বলেছিল, ওরা কিছু জানে না, কেউ কিছু করেনি। বাই দ্য ওয়ে, সেই প্রেমিকপ্রবর সনাতনের কী হলো? যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড হয়ে গেছে নিশ্চয়ই?)

৫ আসলে কী জানেন, এগুলো একটাও সঠিক খবর না। প্রিয়াঙ্কা আসলে হাই সোসাইটি কলগার্ল ছিল, ভেটের ছদ্মবেশে এদিক-ওদিক যেতো ক্লায়েন্টের কাছে। ওইদিনও গিয়েছিল, কিন্তু ক্লায়েন্টদের পায়নি; তাই অতৃপ্ত শরীরের জ্বালা জুড়োতে না পেরে একটা এক লিটারের বোতল কিনে নিজেই নিজেকে রেপ, মানে ফোর্সড সেক্স করে। আসলে ওর অভ্যেস ছিল তো, ওরকমই ভালো লাগতো নইলে আরাম হতো না। কিন্তু সেদিন ওর তাতেও কামশান্তি হলো না। শরীরের জ্বালা কামের আগুন নেভাতে না পেরে ও নিজের স্কুটারের থেকে তেল নিয়ে নিজে নিজেই স্লিপিং ব্যাগের মতো একটা বস্তায় ঢুকে তার ওপর তেল ঢেলে কায়দা করে শুয়ে আগুন জ্বালিয়ে দিল। এই তথ্যগুলো রেড্ডিদের প্রভাব-প্রতিপত্তির জন্য পুলিশ বলে উঠতে পারেনি।

৬ উন্নাও এর মেয়েটার বাড়ির লোক তো পঁচিশ লাখ টাকা পাবে। একটা মেয়ের দাম ভারতে থোড়াই অতো হয়! ওর ভাইএর উচিত এবার সব মিটিয়ে ফেলা।

আমি তীব্রভাবে করপোরাল পানিশমেন্ট বিরোধী। স্টেট-অর্গানাইজড ফাঁসির বিরোধী ছিলাম। মালদার ইংলিশ বাজারের পরিচয়হীন মেয়েটাকে ন্যাংটো হয়ে পুড়ে পড়ে থাকতে দেখে বমি করার পর থেকে আমি সরাসরি পাল্টি খেয়েছি। ফাঁসি হোক, মব জাস্টিস হোক বা ফেক এনকাউন্টার, i am all for that. Whatever works. This is a war. There are only two sides in a war.

And i have chosen mine.

শেয়ার করুন:
  • 28
  •  
  •  
  •  
  •  
    28
    Shares
Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.