কায়রোতে রক্তাক্ত অভিযান: নিহত শতাধিক

egyptউইমেন চ্যাপ্টার ডেস্ক: কায়রোতে ক্ষমতাচ্যুত প্রেসিডেন্ট মুরসির সমর্থকদের সরাতে রক্তাক্ত অভিযান চালাচ্ছে মিশরের বর্তমান সেনা প্রশাসন। এতে শতাধিক নিহত হয়েছে বলে বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমের খবরে জানা গেছে।

বিবিসির এক প্রতিবেদনে বলা হয়, হেলিকপ্টার, বুলডোজারের সম্মিলিত এই অভিযানে টিয়ারসেল ও তাজা বুলেট নিক্ষেপ করা হচ্ছে। ব্রাদারহুডের পক্ষ থেকে মৃতের সংখ্যা ১২০ বলে দাবি করা হয়ছে।

সরকারের পক্ষ থেকে হতাহতের বিষয়ে এখনো কোনো বক্তব্য না আসলেও নিরাপত্তা বাহিনীর একজন সদস্য নিহত হয়েছে বলে জানা গেছে।

কর্তৃপক্ষের বরাত দিয়ে বিবিসির প্রতিবেদনে আরও বলা হয়, শহরের আল-নাহ্‌দা স্কয়ারে ব্রাদারহুড সমর্থকদের আরেকটি ঘাঁটি ইতমধ্যেই ধুলিস্যাৎ করা হয়েছে।

এসময় গুলির শব্দ পাওয়া যায় এবং হেলিকপ্টারও উড়তে দেখা যায়।

এর আগে মিশরের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতিতে বলা হয়, রাবা আল আদাবিয়া মসজিদ ও নাদা স্কয়ারে অবস্থানরত মুরসি সমর্থকদের সরাতে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিচ্ছে নিরাপত্তা বাহিনী। বস্তুত এই দুটি স্থান দখল করে মোহাম্মদ মুরসিকে ক্ষমতায় ফেরানোর দাবিতে বিক্ষোভ চালিয়ে আসছিল তার সমর্থকরা।

সরকারপক্ষের বিবৃতিটিতে বলা হয়, সরকার আর রক্তপাত চায় না। বিক্ষোভকারীদের নিরাপদে সরে যাওয়ার সুযোগ দেয়া হবে। তবে কেউ বাধা দিলে ব্যবস্থা নেয়া হবে।
স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে জানানো হয়েছে, নাদা স্কয়ারের বিক্ষোভকারীদের পুরোপুরি সরিয়ে দিতে সক্ষম হয়েছে নিরাপত্তা বাহিনী।

ব্রাদারহুডের পক্ষ থেকে হতাহতদের নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নিতে প্রয়োজনীয় সহায়তা চাওয়া হয়েছে।

গত সোমবার ভোর থেকে এমন অভিযানের কথা থাকলেও তখন ব্রাদারহুডের অনড় অবস্থানের কথা বিবেচনা করে স্থগিত করা হয় অভিযানটি। কিন্তু বুধবার দিনের প্রথমভাগেই অভিযান শুরু করা হয়।

এই অভিযানকে ঘিরে একেবারেই যুদ্ধ প্রস্তুতি নিয়েছে মুরসি বাহিনী। বালির বস্তা দিয়ে তাদের ক্যাম্পগুলোকে দুর্গ বানিয়ে সেখান থেকেই নিরাপত্তা বাহিনীর অভিযানের পাল্টা জবাব দিচ্ছে তারা।

শেয়ার করুন:
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.