জামায়াত নিষিদ্ধের পথে আরও একধাপ

0

Jamayate Islami BDউইমেন চ্যাপ্টার: রাজনৈতিক দল হিসাবে জামায়াতে ইসলামীর নিবন্ধন হাইকোর্টে বাতিল হয়ে যাওয়ার পর এবার একাত্তরের ভূমিকার জন্য দলটি নিষিদ্ধ ঘোষণার আবেদন করেছে রাষ্ট্রপক্ষ।

সোমবার জামায়াতের সাবেক আমীর গোলাম আযমের সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদণ্ড চেয়ে করা আপিলের সঙ্গেই সংগঠনটি নিষিদ্ধের এই আবেদন করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন অতিরিক্ত অ্যাটর্নি জেনারেল এম কে রহমান জানান।

সোমবার আপিল জমা দেয়ার পর তিনি সাংবাদিকদের বলেন, ‘জামায়াত এ দেশের মুক্তিযুদ্ধের বিরুদ্ধে কাজ করেছে। এটি একটি ঐতিহাসিক সত্য। জামায়াত যারা করে তারাও বলবে না যে তারা মুক্তিযুদ্ধের পক্ষে ছিলেন’।

তিনি বলেন, ‘মোহাম্মদ কামারুজ্জামান, আলী আহসান মোহাম্মদ মুজাহিদ ও গোলাম আযমের মামলায়ও এটা প্রমাণিত হয়েছে। যেহেতু ট্রাইব্যুনাল দলটিকে ক্রিমিনাল সংগঠন হিসাবে উল্লেখ করে একটি পর্যবেক্ষণ দিয়েছে, তাই আমরা আবেদনে বলেছি, দলটিকে নিষিদ্ধ করা হোক’।

অতিরিক্ত অ্যাটর্নি জেনারেল বলেন, সংবিধানের ১০৪ অনুচ্ছেদ অনুসারে ‘পরিপূর্ণ ন্যায়বিচারের’ ক্ষমতা আপিল বিভাগের রয়েছে। সেই ক্ষমতার আলোকে আপিল বিভাগ জামায়াত নিষিদ্ধও করতে পারে।

গত ১৫ জুলাই জামায়াতে ইসলামীর তখনকার আমির গোলাম আযমকে ৯০ বছরের কারাদণ্ড দেয় আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল।

ওই রায়ের পর্যবেক্ষণে জামায়াতে ইসলামীকে ‘ক্রিমিনাল দল’ আখ্যায়িত করে বিচারক বলেন, দেশের কোনো সংস্থার শীর্ষ পদে স্বাধীনতা বিরোধীদের থাকা উচিত নয়।

ট্রাইব্যুনালের আগের রায়গুলোতেও জামায়াতের স্বাধীনতা বিরোধী ভূমিকা ও মানবতাবিরোধী অপরাধে দলটির সরাসরি সংশ্লিষ্টতার বিষয়গুলো উঠে এসেছে।

যুদ্ধাপরাধীদের সর্বোচ্চ শাস্তির দাবিতে গণজাগরণ মঞ্চের আন্দোলন থেকেও ‘যুদ্ধাপরাধী’ দল হিসেবে জামায়াত নিষিদ্ধের দাবি তোলা হয়েছে। গত ১ আগস্ট হাইকোর্টের একটি বৃহত্তর বেঞ্চ জামায়াতের নিবন্ধন বাতিল করে দেয়ার পর জামায়াত নিষিদ্ধের দাবি আরও জোরদার হয়।

 

শেয়ার করুন:
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

লেখাটি ৯ বার পড়া হয়েছে


উইমেন চ্যাপ্টারে প্রকাশিত সব লেখা লেখকের নিজস্ব মতামত। এই সংক্রান্ত কোনো ধরনের দায় উইমেন চ্যাপ্টার বহন করবে না। উইমেন চ্যাপ্টার এর কোনো লেখা কেউ বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করতে পারবেন না।

Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.