যে রাষ্ট্র খুনি বানায়, তার টুঁটি চেপে ধরুন

0

দিলশানা পারুল:

ছেলেধরা সন্দেহে খুন হওয়া তাসলিমা রেনুর ভাইয়ের ফেইসবুক পোস্ট দিয়ে আজকে ওয়াল সয়লাব। অনেকে কেঁদেছেন, অনেকের তীব্র রাগ হচ্ছে, অনেকেই অসুস্থ্য বোধ করছেন!

আপনাদের রাগটাকে, আবেগটাকে আমি আরেকটু বাড়িয়ে দেই। রেনুর বুকের হার ভেঙে হৃদপিণ্ডের মধ্যে ঢুকে গিয়েছিলো। তার মাথার ঘিলু নাক দিয়ে বেরিয়ে এসেছিলো। ভীষণ, ভীষণ রাগ হচ্ছে না শুনে? কাঁদেন, আবেগে আপ্লুত হোন।

তারপর রাগটাকে, কান্নাটাকে, আবেগটাকে ভিতরে জমা করেন। শোধ নেয়ার জন্য প্রতিশ্রুতিবদ্ধ হোন। এ শোধটা কীভাবে নেবেন? ওই খুনির ক্রসফায়ার চেয়ে? এক জায়গায় দেখলাম চারশো জনের নামে বেনামে মামালা হয়েছে। কয়জনের ফাঁসি চাইবেন? নিচে রেনুকে যে মারা হচ্ছিলো তার একটা ছবি দিলাম। জানি আপনারও দেখেছেন। আরেকবার ভালো করে দেখেন। বিষাক্ত শাপকে যেভাবে প্রচণ্ড ঘৃণা নিয়ে লাঠি দিয়ে পিটিয়ে মেরে ফেলা হয়, ঠিক সেইভাবে কী তীব্র ঘৃণা নিয়ে মারা হচ্ছে একজন মানুষকে।

কখনো প্রশ্ন করেছেন এতো রাগ, এতো ঘৃণার উৎস কী এবং কোথায়? ছেলেটার বয়স দেখেন! এই বয়সী একটা ছেলে মনের ভিতর এতো ঘৃণা কেন পুষে রাখবে? আপনি কি বলতে চান এই ছেলেটা, এই চারশ জন মানুষ মায়ের পেট থেকে এতোখানি ঘৃণা নিয়ে জন্মেছে? আর কারও কোন দায় নেই?

‘কেন’ প্রশ্নটা অসম্ভব শক্তিশালী। যতক্ষণ পর্যন্ত আপনার কনফিউশন দূর না হচ্ছে, ততক্ষণ পর্যন্ত ‘কেন’ প্রশ্নটা করেন। করতেই থাকেন। এবার আসি এই রাগ, এই ঘৃণার, এই নিষ্পাপ মানুষগুলোর মৃত্যুর শোধ আপনি নেবেন কীভাবে!

সঠিক জায়গায় প্রশ্ন করতে থাকেন। যে সিস্টেম এই রকমের নরপশুর জন্ম দেয়, সেই সিস্টেমকে প্রশ্ন করেন। কেন পাঁচ বছরের পূজার ধর্ষক জামিনে ছাড়া পায়? কেন মাফিয়াদের বাঁচাতে মিন্নিকে জেলে পোরা হয়? কেন নুসরাতের বিপক্ষে ১৬ জন উকিল দাঁড়ায়? কেন তনু হত্যার কোন বিচার হয় না? পহেলা বৈশাখে নারী মলেস্টশনের বিষয়ে কেন কেউ কোন উচ্চবাচ্য করে না? গত ছয় মাসে ৬০০ ধর্ষণের ঘটনা।

দিলশানা পারুল

পুলিশ কোথায় থাকে? ঘুষ ছাড়া পুলিশ কোন মামলা নেয় না কেন? এলাকার সাংসদরা কেউ কোন জবাবদিহিতার মধ্যে নাই কেন? গুম, খুন, কিডন্যাপ এর সাথে পুলিশ জড়িত থাকে কীভাবে? মানুষের পুলিশের ওপর আস্থা নাই কেন?

আমরা একজন আরেকজনরে ঘৃণা করতে থাকলে সেই ফায়দা কে বা কারা লুটছে? রাগ হোন, ভীষণ রাগে কোন একজনের টুঁটি চেপে ধরেন! তবে সেই একজনটা কোনো মানুষ না ব্যক্তি না। যেই রাষ্ট্র এই রকমের খুনের জন্ম দেয়, খুনির জন্ম দেয়, পারলে সেই রাষ্ট্রের টুঁটি চেপে ধরেন!

শেয়ার করুন:
  • 54
  •  
  •  
  •  
  •  
    54
    Shares

লেখাটি ২৯৬ বার পড়া হয়েছে


উইমেন চ্যাপ্টারে প্রকাশিত সব লেখা লেখকের নিজস্ব মতামত। এই সংক্রান্ত কোনো ধরনের দায় উইমেন চ্যাপ্টার বহন করবে না। উইমেন চ্যাপ্টার এর কোনো লেখা কেউ বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করতে পারবেন না।

Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.