আজ আন্তর্জাতিক মা দিবস

0

শাহিনা হাফিজ ডেইজি:

উইমেন চ্যাপ্টারের সকল পাঠকদের আন্তর্জাতিক মা দিবস এর শুভেচ্ছা।

এই মা দিবসের পেছনে রয়েছে একটি দীর্ঘ ইতিহাস। এই দিবসের শুরুটা হয়েছিল একেবারে ভিন্ন একটা উদ্দেশ্য নিয়ে। ১৮৭০ সালে আমেরিকার গৃহযুদ্ধের তাণ্ডব যখন সব রকমের নৃশংসতা ছাড়িয়ে যায়, সেসময় শান্তির প্রত্যাশায় আমেরিকার এক সমাজকর্মী জুলিয়া ওয়ার্ড হোই “মাদার্স ডে প্রোক্লেমেশন” নামে একটি ঘোষণা পত্র প্রকাশ করেন।

“মা দিবসের ঘোষণাপত্র” মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে মা দিবস পালনের গোড়ার দিকের প্রচেষ্টাগুলির মধ্যে অন্যতম। আমেরিকান গৃহযুদ্ধ ও ফ্রাঙ্কো-প্রুশীয় যুদ্ধের নৃশংসতার বিরুদ্ধে হোই-এর মা দিবসের ঘোষণাপত্রটি ছিল একটি শান্তিকামী প্রতিক্রিয়া। রাজনৈতিক স্তরে সমাজকে গঠন করার ক্ষেত্রে নারীর একটি দায়িত্ব আছে, হোই-এর এই নারীবাদী বিশ্বাস ঘোষণাপত্রটির মধ্যে নিহিত ছিল।

ওই ঘোষণা পত্রে রাজনৈতিক স্তরে নারী কিভাবে সমাজের মানবিক কর্মে ভূমিকা রাখতে পারে তার সুস্পষ্ট বর্ণনা করা হয়েছিল। সেই সময়ে জুলিয়ার সাথে যুক্ত হোন আরো দুজন সমাজ কর্মী আনা রিভিজ জার্ভিস ও তার কন্যা আনা মেরি জার্ভিস। তারা যুদ্ধে পরিবারহারা অনাথ অসহায়দের পুনর্বাসনের জন্য কাজ করে চলেন ও সেইসাথে সাথে মা দিবসের স্বীকৃতি আদায়ের জন্যেও আন্দোলন চালিয়ে যেতে থাকেন।

এরপর ১৯০৫ সালের ৫ মে আনা মেরি জার্ভিস এর মা মৃত্যুবরণ করেন। মায়ের মৃত্যুর পরে
১৯১২ সনে আনা জার্ভিস গঠন করেন আন্তর্জাতিক মাতৃদিবস এ্যাসোসিয়েশন।

এর মাধ্যমে এই আন্দোলন সমস্ত আমেরিকায় ছড়িয়ে পড়লে ১৯১৪ সালে মার্কিন প্রেসিডেন্ট আমেরিকায় মা দিবসের স্বীকৃতি এবং মে মাসের দ্বিতীয় রোববার ছুটি ঘোষণা করেন। ১৯৬২ সালে এটি আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি পায়।

চল্লিশ বছর বয়সী আনা যখন তার কন্যার চোখে মাতৃত্বের ছায়া দেখতে পান তখন তিনি মোটামুটিভাবে চিন্তা করেন বছরের একটি দিন সন্তানেরা তাদের মায়েদের সাথে সময় কাটাবে। কিন্তু ইতিমধ্যেই সমস্ত আমেরিকা জুড়ে এই দিবসের এমনই বাণিজ্যিকীকরণ ঘটে, যা আনা জার্ভিসের কল্পনাতেও ছিল না। পুঁজিবাদী সমাজের এই দিবসের অবমাননার প্রতিবাদে তিনি তাঁর জীবনের সমস্ত সম্পদ ব্যয় করেন
এবং এক সময় এর ঘোর বিরোধিতার কারণে তিনি গ্রেফতারও হোন।

তিনি একসময় আক্ষেপ করে বলেন, মা দিবসের সূচনা না হলেই ভালো হতো, কেননা এটি এখন সকল নিয়ন্ত্রণের বাইরে। মা দিবস তখন থেকে এখন পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্রসহ অনেক দেশে একটি
সফলতম বাণিজ্যিক পর্ব। উদাহরণ স্বরূপ আইবিআইএস ওয়ার্ল্ড নামক একটি বাণিজ্যিক পত্রিকার প্রকাশকের মতে, আমেরিকানরা ২০৬ বিলিয়ন (আনুমানিক) ডলার খরচ করে
ফুলের ওপর, ১০.৫ বিলিয়ন ডলার উপহার, স্পা ও গ্রিটিংস কার্ডের জন্য ৬৮ বিলিয়ন ডলার।

১৯২০ সালেই আনা লিখেছিলেন, “মাতৃদিবসের দিনটি বোঝা, অপচয়জনক, ব্যয়বহুল উপহার দিবস, যেটি ক্রিসমাস বা অন্যান্য বিশেষ দিনের মতোই হয়ে উঠেছে, যা আমাদের কাম্য নয়”।

লেখক: চলচ্চিত্র ও সমাজকর্মী।

শেয়ার করুন:
  • 118
  •  
  •  
  •  
  •  
    118
    Shares

লেখাটি ২৮৩ বার পড়া হয়েছে


উইমেন চ্যাপ্টারে প্রকাশিত সব লেখা লেখকের নিজস্ব মতামত। এই সংক্রান্ত কোনো ধরনের দায় উইমেন চ্যাপ্টার বহন করবে না। উইমেন চ্যাপ্টার এর কোনো লেখা কেউ বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করতে পারবেন না।

Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.