সজাগ থাকার আহ্বান জানালেন প্রধানমন্ত্রী

PMউইমেন চ্যাপ্টার ডেস্ক: কোন অগণতান্ত্রিক শক্তি যেন দল ও মতের ভিন্নতার সুযোগ নিয়ে জনগণের ভাগ্য নিয়ে ছিনিমিনি খেলতে ক্ষমতায় আসতে না পারে সে ব্যাপারে সজাগ থাকার আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। খবর: বাসস।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, বহুদলীয় গণতন্ত্রে দল ও মতের ভিন্নতা থাকবে এটাই স্বাভাবিক, এজন্য এই মত পার্থক্য গণতন্ত্রকে ক্ষতিগ্রস্ত করতে পারে না এবং এর সুযোগ নিয়ে জনগণের ভাগ্য নিয়ে ছিনিমিনি খেলতে কোন অগণতান্ত্রিক শক্তি যেন ক্ষমতায় আসতে না পারে।

তিনি আজ (রোববার) সকালে তাঁর কার্যালয়ে গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের (জিসিসি) নবনির্বাচিত মেয়র এবং কাউন্সিলদের শপথ অনুষ্ঠানে একথা বলেন।

শেখ হাসিনা বলেন, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ বিশ্বাস করে যে জনগণের গণতান্ত্রিক অধিকার সুরক্ষিত এবং তারা তাদের মৌলিক ও সাংবিধানিক অধিকার ভোগ করতে পারে।

‘আমরা জনগণের ভোট ও সাবিধানিক অধিকার নিশ্চিত করতে কঠোর প্রয়াস চালিয়ে যাচ্ছি এবং আমরা চাই জনগণ ব্যালটের মাধ্যমে তাদের প্রতিনিধি নির্বাচন করবে’ উল্লেখ করে তিনি বলেন, বিগত সাড়ে ৪ বছরে অনুষ্ঠিত ৫ হাজার ৬৯১টি নির্বাচনে জনগণের ভোটাধিকার নিশ্চিতের মাধ্যমে তাঁর দলের এই বিশ্বাস প্রতিফলিত হয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, গণতন্ত্র ছাড়া কোন দেশই কাঙ্খিত লক্ষ্যে পৌঁছতে পারে না। তাঁর সরকারের বর্তমান মেয়াদে জাতীয় সংসদের উপ নির্বাচন, সিটি কর্পোরেশন, উপজেলা, পৌরসভা ও ইউনিয়ন পরিষদসহ সকল নির্বাচন অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষভাবে পরিবেশে অনুষ্ঠিত হয়েছে। এ সব নির্বাচনে ৬৩ হাজার ৯০৯ প্রতিনিধি নির্বাচিত হয়েছেন। অতীতে এ দেশে এ ধরণের শান্তিপূর্ণ নির্বাচন হয়নি। নির্বাচনের ফলাফলে কোন অনাকাঙ্খিত ঘটনা ঘটেনি এবং কেউ এ ব্যাপারে কোন অভিযোগও উত্থাপন করতে পারেনি।

বিভিন্ন ক্ষেত্রে বর্তমান সরকারের ব্যাপক উন্নয়নের উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, তাঁর সরকার জাতিকে নিজের পায়ে দাঁড় করাতে চায়। তিনি বলেন, ‘আমরা সুষম উন্নয়নে বিশ্বাসী। আমরা মাথা উঁচু করে এগিয়ে যেতে চাই এবং কারো কাছে হাত পাততে চাই না।’

শেখ হাসিনা নবনির্বাচিত জিসিসি মেয়র ও কাউন্সিলরদের রাজনৈতিক মতের ঊর্ধ্বে উঠে দেশের কল্যাণে একযোগে কাজ করার মাধ্যমে নিজ নিজ এলাকার উন্নয়নে নিজেদের নিয়োজিত করে জনগণের জীবনযাত্রা স্বস্তিকর করার আহ্বান জানান।

নবনির্বাচিত মেয়র ও কাউন্সিলরদের অভিনন্দন জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী তাদের দায়িত্ব পালনে সার্বিক সহযোগিতার আশ্বাস দেন প্রধানমন্ত্রী।

এরআগে শেখ হাসিনা জিসিসি’র প্রথম নির্বাচিত মেয়র অধ্যাপক এম এ মান্নানকে শপথবাক্য পাঠ করান এবং এলজিআরডি ও সমবায় মন্ত্রী সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম সংরক্ষিত আসনে নির্বাচিত ১৯ মহিলা কাউন্সিলরসহ ৭৬ কাউন্সিলরকে শপথ বাক্য পাঠ করান।

অন্যান্যের মধ্যে কৃষিমন্ত্রী বেগম মতিয়া চৌধুরী, পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডা. দীপু মনি, শিল্পমন্ত্রী দিলীপ বড়ুয়া, প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টা ড. মশিউর রহমান, এলজিআরডি ও সমবায় প্রতিমন্ত্রী জাহাঙ্গীর কবীর নানক, শিশু ও মহিলা বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী মেহের আফরোজ চুমকি, গাজীপুর জেলা পরিষদ প্রশাসক আখতারুজ্জামান, প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব শেখ মো. ওয়াহিদ-উজ-জামান ও প্রেস সচিব আবুল কালাম আজাদ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

শেয়ার করুন:
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.