একটি স্বপ্নের মৃত্যু, দায়ী কে?

PRITI-DAS20130811021739উইমেন চ্যাপ্টার: মাত্র ১৬ মাস আগে বিয়ে হয়েছিল প্রীতির। স্বামীর সাথে চট্টগ্রাম থেকে ঢাকাগামী তূর্ণা নিশিথা ট্রেনে করে ঢাকায় ফেরার পথে দূর্বৃত্তদের ছোড়া ঢিলের আঘাতে এই জীবনের সব স্বপ্ন মুছে গিয়ে অন্য জীবনে চলে গেলেন তিনি। ঈদের পরদিন চট্টগ্রামের ভাটিয়ারিতে চলন্ত ট্রেনে এই ঘটনা ঘটে।

খবরে জানা গেছে, নিহত প্রীতি দাশ (২৪) সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে স্নাতক শেষ করে চট্টগ্রামের একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে স্থাপত্য বিভাগে লেখাপড়া করছিলেন। নগরীর আগ্রাবাদ এলাকার গেজেটেড অফিসার্স কলোনিতে শ্বশুরবাড়িতে থাকতেন প্রীতি। ঈদের পরদিন স্বামীর সঙ্গে ফিরছিলেন তার কর্মস্থল ঢাকায়।  প্রীতির স্বামী মিন্টু দাশ ঢাকায় একটি বেসরকারি ব্যাংকে মানবসম্পদ বিভাগের কর্মকর্তা।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, রাত ১১ টায় ট্রেন ছাড়ার আধাঘণ্টা পর ভাটিয়ারি ভাঙ্গা ব্রিজ এলাকা পার হওয়ার সময় বাইরে থেকে দুর্বৃত্তরা চলন্ত ট্রেনে ঢিল ছোড়ে। সেটি সরাসরি প্রীতির মাথায় লাগলে তিনি জ্ঞান হারিয়ে ফেলেন। পরে সীতাকুণ্ড স্টেশনে ট্রেন থামিয়ে দ্রুত সীতাকুণ্ড উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়া হয় প্রীতিকে। সেখান থেকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

এর আগেও বহুবার ঢাকা-চট্টগ্রাম রেলপথে এ ধরনের দুর্ঘটনা ঘটেছে। ঘটনার পর কয়েকদিন প্রশাসন কিছুটা নড়েচড়ে বসলেও পরে আবার সব স্বাভাবিক হয়ে যায়।

শেয়ার করুন:
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.