স্থল সীমান্ত চুক্তি বাস্তবায়নে বিজেপির সমর্থন পাচ্ছেনা মনমোহন

manmohan singhউইমেন চ্যাপ্টার ডেস্ক: বাংলাদেশের সঙ্গে স্থল সীমান্ত চুক্তি বাস্তবায়নে ভারতের সংবিধান সংশোধনের বিলটি সোমবার রাজ্যসভায় তুলছে দেশটির সরকার।

বিজেপির সমর্থন আদায় করতে না পারলেও কংগ্রেস নেতৃত্বাধীন ইউপিএ সরকার বিলটি তুলছে।

১৯৭৪ সালে স্বাক্ষরিত স্থলসীমান্ত চুক্তি এবং ২০১১ সালেরর প্রটোকল বাস্তবায়নের জন্য সংবিধান সংশোধনের প্রয়োজনীয়তা থেকে এই বিল উত্থাপন করা হচ্ছে। কিন্তু সংশোধনী বিলটি পাস হওয়ার জন্য পার্লামেন্টের দুই কক্ষ লোকসভা ও রাজ্যসভায় দুই তৃতীয়াংশ সদস্যের সমর্থন দরকার যা এককভাবে কংগ্রেসের নেই।

স্থলসীমান্ত চুক্তি ও প্রটোকলের আওতায় ভারতের অভ্যন্তরে থাকা বাংলাদেশের সাত হাজার ১১০ একর আয়তনের ৫১টি এবং বাংলাদেশের অভ্যন্তরে থাকা ভারতের মোট ১৭ হাজার ১৬০ একর আয়তনের ১১১টি ছিটমহল বিনিময়ের কথা রয়েছে।

বিলটিকে সমর্থনের বিষয়ে বিজেপি নেতা এল কে আদভানি, অরুণ জেটলি ও সুষমা স্বরাজের সঙ্গে দেশটির প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং বৈঠক করলেও তাতে কোনো ফল আসেনি। তারা বলেন বিজেপি বাংলাদেশের সঙ্গে স্থল সীমান্ত চুক্তি কার্যকর করতে ভারতের সংবিধান সংশোধনের বিলে সমর্থন দেবে না।

বিজেপি নেতা যশবন্ত সিনহা সোমবার এক সংবার সম্মেলনে বলেন, সরকারের উচিৎ ছিল বাংলাদেশের সঙ্গে এ ধরণের চুক্তি করার আগে বিজেপির মতামত নেয়া। তা না করে কংগ্রেস এখন সমর্থন চাইছে।

টেলিভিশনটি তাদের এক সূত্রের বরার বলে, ‘কৌশলগত কারণে বাংলাদেশের আগামী জাতীয় নির্বাচনের আগেই ছিটমহল বিনিময়ের বিষয়টির নিস্পত্তি করতে চায় কংগ্রেস সরকার, কারণ স্থল সীমান্ত চুক্তি বাস্তবায়নের সঙ্গে শেখ হাসিনা নেতৃত্বাধীন বাংলাদেশ সরকারের নির্বাচনী ভাবমূর্তি জড়িত।’

পূর্বে কংগ্রেস সরকার গত ফেব্রুয়ারিতে রাজ্যসভায় এই বিলটি তোলার উদ্যোগ নিলেও বিরোধী দলের বিরোধিতায় তা আটকে যায়।

গত মাসের শেষ দিকে ভারত সফরে পররাষ্ট্রমন্ত্রী দীপু মনি দেশটির বিরোধী-দলীয় নেতা বিজেপির অরুণ জেটলির সঙ্গে এ বিষয়ে আলোচনা করেন। সে সময় তিনি ‘দলের মধ্যে আলোচনা করে তারা এ বিষয়ে জানাবেন’ বলে দীপু মনিকে বলেছিলেন।

ওই সফরে দীপু মনিকে ভারত সরকার এই চুক্তির বাস্তবায়নে কাজ করার সদিচ্ছার কথা জানালেও বিজেপির বিরোধীতায় তা আবার অনিশ্চয়তার মুখে পড়ে গেছে।

শেয়ার করুন:
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.