ফেব্রুয়ারি থেকে সহিংসতায় নিহত ১৫০: এইচআরডব্লিউ

Human-Rights-Watchউইমেন চ্যাপ্টার ডেস্ক : বাংলাদেশে রাজনৈতিক সহিংসতা ও জামায়াত-হেফাজতের বিক্ষোভ দমনের নামে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর শক্তি প্রয়োগে ফেব্রুয়ারি থেকে জুলাই পর্যন্ত মোট ১৫০ জন নিহত হয়েছে। আহত হয়েছে দুই হাজারের বেশি মানুষ। পাশাপাশি এসব ঘটনায় উল্লেখযোগ্যসংখ্যক বিক্ষোভকারীকে গ্রেপ্তার করা হলেও বাংলাদেশের কর্তৃপক্ষ নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যদের জবাবদিহিতার ব্যাপারে কোনো কার্যকর পদক্ষেপ নেয়নি। যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্থা হিউম্যান রাইটস ওয়াচের (এইচআরডব্লিউ) এক প্রতিবেদনে এসব কথা বলা হয়েছে। সাম্প্রতিক সময়ে বাংলাদেশে বিক্ষোভ ও নিরাপত্তা বাহিনীর ভূমিকা-সম্পর্কিত ৪৮ পৃষ্ঠার প্রতিবেদনটি আজ বৃহস্পতিবার প্রকাশিত হয়েছে। প্রতিবেদনে বলা হয়, আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের রায় এবং হেফাজতে ইসলামীর সমাবেশকে কেন্দ্র করে সহিংসতা দমনে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী মাত্রাতিরিক্ত শক্তি প্রয়োগ করলেও সরকার এ ব্যাপারে কোনো কার্যকর পদক্ষেপ নেয়নি। বাংলাদেশের নিরাপত্তা বাহিনী প্রায়ই রাজপথে বিক্ষোভের বিরুদ্ধে মাত্রাতিরিক্ত শক্তি প্রয়োগ করে থাকে। এতে চলতি বছরের ফেব্রুয়ারি থেকে নিহত হয়েছে কমপক্ষে দেড়শ জন।

এক সংবাদ বিজ্ঞাপ্তিতে সংস্থাটি বলেছে, বিরোধী দলে থাকা বিএনপি ও জামায়াতে ইসলামী এবং হেফাজতে ইসলামের মতো সংগঠনগুলোকে পদক্ষেপ নিতে হবে, যাতে তাদের কর্মীরা আইনশৃঙ্খলা বাহিনী বা ভিন্নমতের কারও ওপর হামলা বা বেআইনি কর্মকাণ্ডে না জড়ায়।

এইচআরডব্লিউ এর এশিয়া অঞ্চলের পরিচালক ব্র্যাড অ্যাডামস বলেন, এর সঙ্গে বাংলাদেশের ভাবমূর্তি জড়িত। সব দায়িত্বশীল নেতারই উচিৎ কর্মীদের শান্ত রাখার চেষ্টা করা এবং সহিংসতার পথ পরিহার করে আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল থাকা।

শেয়ার করুন:
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.