প্রিয়াঙ্কার প্রেমে ওদের গাত্রদাহ

0

মনিজা রহমান:

প্রিয়াঙ্কা চোপড়াকে আমেরিকানরা তো বটে, সারা পৃথিবীর মানুষ চেনে। ভারতের ইতিহাসে কোনো অভিনেতা-অভিনেত্রী এতো জনপ্রিয়তা পায়নি হলিউডে। মেগান মার্কেলের বন্ধু হিসেবে দাওয়াত পেয়েছে ব্রিটিশ রাজ পরিবারের বিয়েতে। প্রিয়াঙ্কাকে নিয়ে যেখানে সব ভারতীয়দের গর্ব করা উচিত, বাস্তবে ঘটে তার উল্টোটা।

ইদানিং বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রিয়াঙ্কাকে তাঁর নতুন বয়ফ্রেন্ড নামকরা গায়ক নিকি জোনাসের সঙ্গে ছবি দেখা যাচ্ছে। দুজনে কোথাও গেলে পাপারাজ্জিরা ছবি তোলার জন্য হামলে পড়ে। সেই সব ছবি ইন্সট্রাগ্রামে বিভিন্ন এ্যাকাউন্ট থেকে পোস্ট করা হয়। আর সেই সব ছবিতে এমন সব কদর্য কমেন্টস, চিন্তাই করা যায় না। ‘মা আর ছেলে’ ,‘আন্টির সাথে’, ‘‘প্রিয়াঙ্কা এ্যাডাপ্ট করেছে নিকিকে’ – ইত্যাদি লেখা হচ্ছে কারণ প্রিয়াঙ্কা নিকির চেয়ে দশ বছরের বড়।

একটা বিরাট অংশ গালিগালাজ করে ‘র‌্যান্ডি’ ‘বিচ’ ‘কুত্তি’ ‘কুত্তি কো কোন ইন্ডিয়ান পুরুষ নেয়না’ এসব বলে। কেউ লেখে এই সম্পর্কে টিকবে ‘এক মাস’, এর বাইরেও তাদের শারীরিক সম্পর্ক বিশ্রি সব সম্পর্ক। কেউ লিখেছে- গ্রীন কার্ডের জন্য এটা করছে। এমনকি প্রিয়াঙ্কা যখন ইউনিসেফ প্রতিনিধি হিসেবে কক্সবাজারে রোহিঙ্গা ক্যাম্পে এসেছে তখনও অনেকে বলেছে, এসব লোক দেখানো অভিনয়।

হিংসাই হচ্ছে এই ধরনের মনোভাবের কারণ। মানুষের চরিত্রের সবচেয়ে কদর্য রূপ। ৩৫ বছর বয়সী এক ভারতীয় নারী ঘর-সংসার না করে, সারা দুনিয়া মাতিয়ে বেড়াচ্ছে, কম বয়সী সুদর্শন তরুণকে নিয়ে ঘুরছে, এটাই আসলে কারো সহ্য হচ্ছে না।

ভারতীয় নায়িকাদের বেশিরভাগের ক্যারিয়ার শেষ হয়ে যায় ৩০ বছর বয়সে এসে। মিডিয়া সারাক্ষণ নতুন আগত ২০ কী ২১ বছর বয়সী নায়িকার বন্দনায় মত্ত থাকে। হালে শ্রীদেবীর মেয়ে জাহ্ণবী কাপুরকে নিয়ে চলছে প্রশংসার ঝড়। এখন যে ভক্ত-দর্শকদের ‘সুয়োরানী’, ত্রিশ বছর পার হয়ে গেলে, বিয়ে শাদি করে ফেললে সে হয়ে যায় ‘দুয়োরানী’।

মাত্র ১৮ বছর বয়সী মিস ওয়ার্ল্ড খেতাব পাওয়া প্রিয়াঙ্কা বলিউডে সব নামকরা নায়কের সঙ্গে সুপার হিট মুভি উপহার দিয়েছে। মেরি কম, বরফি, বাজিরাও মাস্তানির মতো সিনেমায় রেখেছে অসাধারণ অভিনয় প্রতিভার নিদর্শন। কেউ সেটা মনে রাখেনি। বলিউডে ক্যারিয়ারের পড়ন্ত বেলায় সে নাম লিখিয়েছে হলিউডে। আমেরিকার অত্যন্ত জনপ্রিয় টিভি সিরিজ কোয়ানটিকোর কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয় করেছে সে। হলিউডের বিখ্যাত অভিনেতা ডোয়াইন জনসনের বিপরীতে বেওয়াচে অভিনয় করেছে। জেমস বন্ডের পরবর্তী সিক্যুয়েলে অভিনয় করার প্রস্তাব পেয়েছে। প্রিয়াঙ্কার এসব অর্জন শুধু সৌন্দর্য্য আর মেধার কারণে নয়, প্রচণ্ড পরিশ্রম ও অধ্যবসায়ের ফসল।

প্রিয়াঙ্কার নতুন বয়ফ্রেন্ড নিকি জোনাসও কিন্তু একজন দারুণ ফ্যামিলি ম্যান। ভাইদের নিয়ে গড়া তাদের ব্যান্ড বিশ্ব বিখ্যাত। নিকি ইন্সট্রাগ্রামে সর্বশেষ ছবিটা বাবা-মা, দাদী আর দুই ভাইয়ের সঙ্গে দেয়া। সেখানে সে লিখেছে ‘কুল ফ্যামিলি’। বড় ভাইয়ের চার বছরের মেয়ে তাঁর পৃথিবীতে সবচেয়ে প্রিয় কেউ। সময় পেলে ভাতিজির সঙ্গে সময় কাটায় আর তার সঙ্গে ছবি দেয়।

প্রিয়াঙ্কাকে নিয়ে নিকি তাঁর এক কাজিনের বিয়েতে গেছে। পারিবারিক কোনো অনুষ্ঠানে গার্লফ্রেন্ডকে নিয়ে যাওয়া তাকে আনুষ্ঠানিক স্বীকৃতি দেয়া। নিকি এর আগে কেট হাডসন ও অলিভিয়া কাল্পের মতো সেলিব্রেটিদের সঙ্গে প্রেম করলেও কাউকে পারিবারিক কোনো অনুষ্ঠানে নিয়ে যায়নি। প্রিয়াঙ্কাকে পেয়ে নিকির পরিবারের সবাইকে খুব আনন্দিত মনে হয়েছে। তাদের বয়সের ফারাক নিয়ে কেউ সেখানে মাথা ঘামায়নি।

আজেবাজে মন্তব্যের কারণে প্রিয়াঙ্কা আর নিকি পরস্পরের ইন্সট্রাগ্রামে কমেন্টস করা থেকেও বিরত রেখেছে। কারণ ওখানে গিয়েও রিপ্লাই বাটনে চলে ভক্তদের উৎপাত।

অস্ট্রেলিয়ার এক চিড়িয়াখানায় গিয়ে কোয়েলার সঙ্গে ছবি তুলেছে নিকি। সেখানে প্রিয়াঙ্কা লিখেছে ‘হু ইজ কিউটার?’ সেখানে রিপ্লাইয়ে ছয়শ’র ওপর কমেন্টস এসেছে। যার বেশিরভাগ অশ্লীল। আবার নিকি জোনাস প্রিয়াঙ্কার হাস্যোজ্জ্বল এক ছবিতে কমেন্টস করেছে-‘দ্যাট স্মাইল, লাভ।’ ওখানেও নোংরা মনের মানুষদের হামলা। বেশিরভাগ ভারতীয়ই ভাবছে না এর ফলে তাদের নিয়ে কী ধারণা পাচ্ছে অন্যরা!

লেখাটি ভাল লাগলে শেয়ার করুন:
  • 168
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    168
    Shares

লেখাটি ১,৮২৩ বার পড়া হয়েছে


উইমেন চ্যাপ্টারে প্রকাশিত সব লেখা লেখকের নিজস্ব মতামত। এই সংক্রান্ত কোনো ধরনের দায় উইমেন চ্যাপ্টার বহন করবে না। উইমেন চ্যাপ্টার এর কোনো লেখা কেউ বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করতে পারবেন না।

Copy Protected by Chetan's WP-Copyprotect.